এমিটিসন ও গোল্ড প্লেট অলংকারের ক্রেতা শুন্য

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ এবারের ঈদ বাজারে এমিটিসন ও গোল্ড প্লেট অলংকার বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠানেও মন্দাভাব। রমজান প্রায় শেষের দিকে এলেও নগরীর এমিটেশন অলংকার বিক্রি করা জুয়েলারীতে নেই ক্রেতাদের তেমন কোন ভীড়। বিগত কোন সময়ই এমন অবস্থা হয়নি বলে জানিয়েছে বিক্রেতারা। তবে ঈদের আগ মুহুর্তে এমন অবস্থা থেকে বের হয়ে আসবেন বলে মনে করেন তারা। গতকাল মঙ্গলবার এমিটিস্বর্ন ও গোল্ড প্লেট অলংকারের ঈদ বাজার তথ্য সংগ্রহ কালে কথাগুলো জানায় বিক্রেতারা। বিস্তারিত তথ্যে নগরীর কাটপট্টি এলাকার শোভা গহনা ঘর এর বিক্রয় প্রতিনিধি রানা সাহা জানান, প্রতি বছর এই সময়েই তাদের মত এমিটিসন ও গোল্ড প্লেট এর গহনা বিক্রয়কারী বিপনী গুলোতে থাকে রমনীদের রমরমা ভীড়। তবে এ বছর পুরোটাই ব্যতিক্রম। দিনভর ক্রেতাদের অপেক্ষাই কেটে যাচ্ছে তাদের সময়। নগরবাসীর হাতে অর্থাভাব, বাজেটের মাস এবং চাহিদার কমতির কারনেই এ বছর এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। সিটি গোল্ড এর অলংকারের চাহিদা কম তবে গোল্ড প্লেট ও মেটাল প্লেটের গহনার কিছু চাহিদা রয়েছে। রমনীদের জন্য আছে তিস্তা হার, শঠ হার, কন্ঠ চিক, চুড় (চুড়ি) লকেট সেট পাথরের দুল সহ দেশী-বিদেশী ডিজাইনের নানা গহনা। সিটি গোল্ডের গহনা বিক্রি করা হয় ১০০ থেকে ২০০০ টাকা পর্যন্ত। গোল্ড প্লেট ও মেটাল প্লেটের গহনা ১ থেকে ২০ হাজার এর মধ্যে তৈরি ও রেডিমেট বিক্রি করা হয়। সব ধরনের গহনার মধ্যে বর্তমানে মেটাল প্লেট এর চাহিদা সর্বাধিক। ঈদের আগে পোশাকের কেনা বেচা শেষেই বাড়বে গহনা বিক্রি কারন পোশাকের সাথে মিলিয়েই নারীরা কিনে থাকে এ সকল গহনা।