একাডেমিক ভবন রক্ষায় আবার আন্দোলনে যাচ্ছে নার্সিং শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ আবারো আন্দোলনে নামতে পারে বরিশাল নার্সিং কলেজ শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘ দিন পর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রনালয় থেকে তাদের একাডেমিক ভবনটি মেডিকেল শিক্ষার্থীদের আবাসনের জন্য দিতে বলে প্রেরিত এক চিঠির প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতোমধ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার চিঠি হাতে পেয়ে সন্ধ্যার দিকে নার্সিং কলেজের একাডেমিক ভবনের সামনে জড় হয় তারা। তবে গতকাল তাৎক্ষনিক ভাবে কোন কর্মসূচী ঘোষনা করতে পারেনি শিক্ষাথীরা।
বরিশাল নার্সিং কলেজের ছাত্রী সুশমিতা জানান, সম্প্রতি মেডিকেল কলেজ ছাত্রীনিবাসের নির্মান কাজ শুরু হওয়ায় মেডিকেল ছাত্রীদের আবাসন ব্যবস্থা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। যার ফলে মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ নব নির্মত নার্সিং কলেজের একাডেমিক ভবনটি মেডিকেল ছাত্রীদের আবাসন ব্যবস্থার জন্য চেষ্টা করেন। কিন্তু নার্সিং শিক্ষার্থীরা তাদের একাডেমিক ভবন রক্ষায় আন্দোলন শুরু করেন। লাগাতার আন্দোলনের এক পর্যায় কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে নার্সিং একাডেমিক ভবনে মেডিকেল ছাত্রীনিবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত বাতিল করেন। তাদের এই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি আন্দোলন থেকে সড়ে দাড়ান শিক্ষার্থীরা। কিন্তু গতকাল হঠাৎ করেই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রনালয় থেকে প্রেরিত এক চিঠি নার্সিং কলেজ শিক্ষার্থীদের হাতে পৌছায়। চিঠিতে লেখা রয়েছে মেডিকেল কলেজ ছাত্রী নির্মান কাজ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত নার্সিং একাডেমিক ভবনটি মেডিকেল ছাত্রলীদের আবাসনের জন্য হস্তান্তর করেন নির্দেশ করেন মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব। চিঠি হাতে পেয়ে সন্ধ্যার পর পরই শিক্ষার্থীরা একাডেমিক ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। তারা এ নিয়ে তারা বৈঠক করেছে। তবে কোন সিদ্ধান্তে পৌছাতে পারেনি।
নার্সিং ছাত্রী পুংকু জানান, আজ শুক্রবার নার্সিং শিক্ষার্থীরা পুনরায় বৈঠকে বসবেন। এর পর সেখান থেকেই একাডেমিক ভবন রক্ষায় করনীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত এবং আন্দোলন শুরু করবেন তারা।