একমি’র ৩ মেডিকেল প্রতিনিধির নামে অর্থ আত্মসাতের মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ঔষধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান একমি ল্যাবরেটরীজের মেডিকের রিপ্রেজেনটেটিভ। সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে করা মামলা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)কে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। গতকাল বুধবার ঐ কম্পানির সেলস এন্ড প্রমোশন রিপ্রেজেনটেটিভ সুপারভাইজার বাদী হয়ে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মামলা করে। আদালতের বিচারক মোঃ আনোয়ারুল হক মামলটি দুদকে প্রেরণ ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন। অভিযুক্তরা হলো, নাটোর, আওলাইল গ্রামের হাছেন আলীর ছেলে জাকির হোসেন, আজাহার আলীর ছেলে শাহজাহান আলী ও রাজশাহী বাটিকামরি গ্রামের মৃতঃ আঃ সামাদ এর ছেলে মোঃ আব্দুল হামিদ। মামলাসূত্রে জানাযায়, জাকির কম্পানির সকল শর্তাবলি মেনে অঙ্গিকারনামা দিয়ে ২০১২ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি কাজে যোগদান করে। এ সময় চাকরীর জামিনদার হিসেবে শাহজাহান আলী ও আব্দুল হামিদ দায়িত্ব নেয়। পরে কাজে সহায়তার জন্য জাকিরকে একটা মটরসাইকেঠল দেয়া হয় এবং মুলাদীতে দায়িত্ব দেয়া হয়। পরবর্তীতে কম্পানির ২ লাখ ৯৯ হাজার টাকা ও মটর সাইকেল সহ জাকির আত্মগোপন করে। এ ঘটনায় গত ১৯ মার্চ জাকিরকে নোটিশ দেয়া হয়। ২৭ মার্চ জাকির মুলাদি বাজারের ডাঃ আবুল কালাম জাগরনী ফার্মেসীতে টাকা নেয়ার কথা অস্বীকার করে। একই সাথে জামিনদার শাহজাহান ও হামিদ টাকার কথা অস্বীকার করে। এ ঘটনায় আদালতে মামলা করলে বিচারক ওই আদেশ দেন।