উচ্ছেদের পূর্বে পুর্নবাসনের দাবীতে রসুলপুরবাসীর কর্মসূচী পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ উচ্ছেদের নোটিশ পাওয়ার পর প্রতিবাদী হয়ে উঠেছে নগররীর রসুলপুরবাসী। নগরীর ৯নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত কীর্তনখোলা চর রসুলপুরের খাস জমির বাসিন্দাদের সমন্বয়ে গঠিত দুই সংগঠনের ডাকে গতকাল সোমবার মানববন্ধন করা হয়েছে। এছাড়াও বিক্ষোভ করে মেয়র, জেলা প্রশাসক ও সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কাছে গিয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে। রোববার সদর উপজেলা ভূমি অফিস থেকে খাস জমির অবৈধ দখলদারদের নোটিশ পাওয়ার তিনদিনের মধ্যে খালি করার নির্দেশনা দেয়া হয়। প্রতিবাদে সেখানে স্থায়ীসহ অস্থায়ীভাবে বাসস্থান করে বসবাসকারীরা নিজেদের ভূমিহীন দাবী করে পুনর্বাসন ব্যতীত উচ্ছেদ না করার দাবীতে রসুলপুর নাগরিক অধিকার সংগ্রাম কমিটি ও জেলা বাস্তহারা লীগের ব্যানারে ওই কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হলের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করে জেলা বাস্তহারা লীগের সভাপতি কাজী ওয়াহেদ। সেখানে বক্তব্য দেয় রসুলপুর নাগরিক অধিকার সংগ্রাম কমিটির উপদেষ্টা ডা. মনিষা চক্রবর্তী, বাম নেতা এ্যাড. একে আজাদ, খলিলুর রহমান, নরেশ চন্দ্র দাস প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা জানায়, গত ২১ জুন উপজেলা ভূমি অফিস থেকে পাঠানো নোটিশের মাধ্যমে রসুলপুরের প্রায় দু’শতাধিক পরিবারকে ৩ দিনের মধ্যে বাসস্থান ত্যাগ করার নির্দেশ দেয়া হয়। গত ১৭ জুনে ইস্যুকৃত ওই নোটিশে উল্লেখ করা হয়, বিআইডব্লিউটিএ’র বেড়িবাধ নির্মান প্রকল্পের জন্য হাইকোর্টে করা রিটের প্রেক্ষিতে নোটিশ জারী করা হয়েছে। নোটিশের কোথাও ভূমিহীন দু’শতাধিক পরিবারের পুনর্বাসনেরকথা উল্লেখ করা হয়নি। তাই পুনর্বাসন ছাড়া কোন ধরনের উচ্ছেদ না করার জোর দাবী জানায় বক্তারা। পরে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসক বরাবর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) আবুল কালাম আজাদের নিকট স্মারকলিপি দেয়। এছাড়াও সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও সহকারী ভূমি কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হয়।