ইয়াবা সহ বাকেরগঞ্জের কাউন্সিলর নান্নু’র সহযোগী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ মাদক কেনা বেচার নিরাপদ আশ্রয় নগরীর সদর রোডের আবাসিক হোটেল আলী ইন্টারন্যাশনালে সফল অভিযান চালিয়েছে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ। এসময় সেখান থেকে ১০৫ পিস ইয়াবা সহ বাকেরগঞ্জ পৌর সভার কাউন্সিলর নান্নু শরীফের সহযোগীকে আটক করেছেন তারা। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কোতয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন এর নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়। ইয়াবা সহ আটক মাদক বিক্রেতা আশিকুর রহমান আশিক (৩০) বাকেরগঞ্জ উপজেলার কাফিলা গ্রামের হযরত আলী শরিফের ছেলে।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন নগরীর সদর রোডের আবাসিক হোটেল আলী ইন্টারন্যাশনালে মাদকের কেনা-বেচা হচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গিয় অফিসার এবং ফোর্স নিয়ে আলী ইন্টারন্যাশনালের ৩২০ নম্বর রুমে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় ভেতরে থাকা আশিকুর রহমান আশিক’র দেহ এবং হোটেল কক্ষে থাকা মালামাল তল্লাশি করা হয়। এসময় মাদক ব্যবসায়ী আশিকুর রহমান আশিক পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে হোটেলের সামনে থেকে লাফ দিয়ে পালাবার চেষ্টা করে। কিন্তু পুলিশ কর্মকর্তাদের চৌকশতার কারনে লাফিয়ে পালাতে ব্যর্থ হয় আশিক। পরে হোটেল কক্ষ থেকে ১০৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেন অভিযানিক দল।

এসআই দেলোয়ার হোসেন আটককৃত আশিকুর রহমান আশিকের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে জানান, তার কাছে যে ইয়াবা পাওয়া গেছে তার মালিক বাকেরগঞ্জ পৌর সভার মেয়র এবং আওয়ামী লীগ নেতা নান্নু শরীফ। ঐ ইয়াবা বিক্রির জন্য নান্নু তাকে বরিশাল নগরীর আলী ইন্টারন্যাশনালে প্রেরন করেছেন। আশিক দীর্ঘদিন যাবত পৌর কাউন্সিলরের আড়ালে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী নান্নু শরিফের মাদক বরিশাল সহ দক্ষিণাঞ্চলের বিভিণœ স্থানে পাচার করে আসছিলো। এর পূর্বেও একাধিকবার আবাসিক হোটেল আলী ইন্টারন্যাশনালে অবস্থান নিয়ে খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে মাদকের চালান পৌছে দেয় বলেও স্বীকার করেছে আটক আশিক।

এদিকে স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানাগেছে, নগরীর মধ্যে হোটেল আলী ইন্টারন্যাশল মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে নিরাপদ আস্তানা হিসেবে পরিচিত। শুধু মাত্র কাউন্সিলর নান্নুর মাদকই নয়, বরিশালের বাইরে থেকে আসা বড় ধরনের মাদক ব্যবসায়ীরা এখানে হোটেল কক্ষ ভাড়া নিয়ে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। হোটেল কর্তৃপক্ষের কোন প্রকার বাধা না থাকার কারনেই এমনটি হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন স্থানীয় একাধিক ব্যবসায়ীরা। তবে শুধু মাত্র আলী ইন্টারন্যাশনালেই নয়, নগরীর প্রায় নামিদামী এবং পুরানো হোটেল গুলোতেও এভাবেই মাদক ব্যবসার নিরাপদ আশ্রয় তৈরী করে রেখেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। এর পূর্বে নগরীর সাগরদী আমলতার মোড় হোটেল ইস্টার্নে অভিযান চালিয়ে ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছিলো মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।