ইয়াবাসহ তরুনী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ সদর উপজেলার বেলতলা এলাকা থেকে আড়াইশ পিস ইয়াবা সহ এক তরুনীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বেলতলা সুন্দরবন ডক ইয়ার্ড সংলগ্ন একটি বাসা থেকে সাথী আক্তার (১৯) নামের তরুনীকে আটক করে কাউনিয়া থানা পুলিশ। তবে ইয়াবা সহ আটকের ঘটনাটি সাজানো বলে দাবী করেছে আটককৃত তরুনী। আটকৃত তরুনী সদর উপজেলার তালুকদারহাট গ্রামের বাসিন্দা। তার স্বামী মাদারীপুর রাজৈর গ্রামের মো. হাবিবুর রহমান। সাথী বেলতলা ডক ইয়ার্ডের পার্শ্ববর্তী একটি বাসায় একটি শিশু সন্তানকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন। গতকাল মঙ্গলবার সাথী নামের ঐ তরুনীকে মাদক মামলায় আদালতে প্রেরন করা হলে বিচারক তাকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। অভিযানকারী কাউনিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এসএম শাহীন এবং সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আনিসুর রহমান জানান, সাথী নামের তরুনী তার ঘরের মধ্যে মাদকের বেচা কেনা করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে তারা অভিযান চালান। এসময় ঘরের মধ্যে তল্লাশি করে দুটি প্যাকেটে আড়াইশপিস ইয়াবা উদ্ধারের পাশাপাশি সাথীকে আটক করা হয়।
ইয়াবা সহ আটক সাথী জানায়, সে ইয়াবার ব্যবসা করে না। তার ঘরের পার্শ্ববর্তী মুরাদ দীর্ঘ দিন যাবত ইয়াবার ব্যবসা করে আসছে। তাছাড়া মুরাদ বিভিন্ন সময় তাকে কু প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় তার ঘরের মধ্যে ইয়াবা রেখে তাকে ধরিয়ে দিয়েছে। মুরাদকে আটক করে প্রকৃত সত্য বেরিয়ে আসবে বলেও দাবী করে সাথী।
কাউনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মাহাবুবর রহমান জানান, যেহেতু ইয়াবা সহ আটক হয়েছে, তাই এই ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। ঐ মামলায় তাকে গতকাল আদালতের মাধ্যমে জেলে প্রেরন করেছেন বিচারক। তিনি বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত করে ইয়াবা ব্যবসার সাথে আর কারো সম্পৃক্ততা পেলে তার বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।