আ’লীগ নেতা দুলাল’র ছেলে ইরাম’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাড়ীটা কেন যেন খালি খালি লাগছে। সবই আছে তারপরেও মনে হচ্ছে কি যেন নেই। রাতে ঘুম আসেনা। হঠাৎ কি যেন এক শূন্যতায় হাহাকার হয়ে ওঠে বুকটা। খেতে বসলে পেটে খাবার যায়না। দিন শেষে রাত গড়ালেই কষ্টটা বেড়ে যায়। সন্তান হারা বাবার কান্নায় আশপাশের লোকজন মাঝে মাঝে ছুটে আসেন। বুঝানোর চেষ্টা করেন কিন্তু ‘যার চলে যায় সেই বোঝে হায়’। বলছিলাম নগরীর ২২ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি আনিচুর রহমান দুলালের কথা। ২০১৬ সালের এই দিনে তিনি হারান তার সবচেয়ে বড় সম্পদ ছেলে ইরামকে। ওই বছরের ৩০ জুলাই বাকেরগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয় সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র ইরাম রহমান। ছেলে হারানো বাবা আনিচুর রহমানের পরিবারে আজও যেন সবকিছু থাকতেও কিছু একটা নেই। ইরামের মৃত্যুতে শুধু আনিচুর রহমানের পরিবারেই নয় পুরো এলাকা জুড়ে এখনো বিরাজ করছে শোকের আবহ। এলাকায় মিষ্টিভাষী, সদালাপী হিসেবেই সবাই চিনতো ইরামকে। কারো সাথে কখনো খারাপ আচরণ করেছে এমন কোন উদাহরন নেই। সৈয়দ হাতেম আলী কলেজে পড়াশুনা অবস্থায় সকলের শ্রেনীর পরশ ছিলো ইরামের উপর। শিক্ষকরাও বিনয়ী হিসেবে ¯েœহ করতো ইরামকে। আজ ইরামের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে পরিবারের পক্ষ থেকে কোরআনখানী ও দোয়া মিলাদের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া স্থানীয় বাসীন্দাদের পক্ষ থেকেও ইরামের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া-মিলাদ অনুষ্ঠিত হবে বলে ইরামের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।