আরজ আলী মাতুব্বর’র স্মৃতি ধরে রাখতে পুলিশ কমিশনারের আহবান

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ চারন দার্শনিক আরজ আলী মাতুব্বরের বাস করা ভিটায় হচ্ছে পাকা ভবন। সেই ভবনে হবে আরজ আলী স্মৃতি ধরে রাখার জাদুঘর। গতকাল মঙ্গলবার ওই ভবনের নির্মান কাজ উদ্বোধন করেছেন মহানগর পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন। জাদুঘরের জন্য নির্মিতব্য ভবনের ফলক উম্মোচন ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন বলেন, কমিউনিষ্ট ও নাস্তিক হিসেবে প্রচার করে দার্শনিক আরজ’র সবটুকু কেড়ে নিয়েছে তার নিজের লোকেরা। তবুও তিনি দমে যাননি। তিনি কখনোই ছিলেন না ধর্মবিরোধী। ধর্ম নিয়ে অনেক পড়াশুনাও করেছেন তিনি। চরবাড়িয়া ইউনিয়নের লামচরি গ্রামের আরজ আলী মাতুব্বরের ভিটায় জাদুঘর নির্মান সম্পর্কে পুলিশ কমিশনার বলেন, জাদুঘর ও পাঠাগার নির্মান হলে এখানে মানুষের পদচারনা বেড়ে যাবে। দেশের বিভিন্নস্থান থেকে মানুষ ছুটে আসবে। তাই গ্রামবাসী সকলকে আরজ আলী মাতুব্বরের স্মৃতি ধরে রাখতে আহবান জানিয়েছেন তিনি। ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহতাব হোসেন সুরুজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন আরজ আলী মাতুব্বরের একটি কবিতা আবৃতি করেন। এছাড়াও তিনি আরজ আলী মাতুব্বরের কুড়ে ঘরটি ঘুরে দেখেছেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহানগরের (উত্তর) উপ-পুলিশ কমিশনার মো. হাবিবুর রহমান, সহকারী পুলিশ কমিশনার ( কাউনিয়া থানা) শাহনাজ পারভীন, সহকারী পুলিশ কমিশনার অপু সরোয়ার প্রমুখ।
এ বিষয়ে আরজ আলী মাতুব্বরের বংশধর শামীম মাতুব্বর জানান, বসত ভিটায় জাদুঘর নির্মান কাজ শুরু হয়েছে। খুব শীঘ্র্রই সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে পাঠাগার ভবনও হবে। প্রায় আড়াই কোটি টাকা ব্যয়ে ওই ভবন নির্মান হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।