আদালত পাড়ার পুকুর ভরাটে নিষেধাজ্ঞার নালিশী তদন্তের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বরিশাল আদালতের ঐতিহ্যবাহী পুকুর অসৎভাবে দখল করে ভরাটের অভিযোগে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সম্পাদক সহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সেন্ট পিটার চার্চ এর ধর্ম যাজক শান্তি মন্ডল অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে এই মামলা করেন। মামলায় বাদী ওই পুকুরের উপর ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারা দেওয়ার আবেদন জানান। আদালতের নির্বাহী হাকিম কাজী হোসনে আরা মামলাটি তদন্তের জন্য কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন। মামলার বিবাদীরা হলো, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আনিছ উদ্দিন আহাম্মেদ সহিদ ও সম্পাদক কাজী মনিরুল হাসান সহ অজ্ঞাত আরও ১২ জন। নালিশি মামলা সূত্রে জানা গেছে, সম্পত্তিটি খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের ২’শ বছরের পুরানো পুকুর। ওই পুকুরে খ্রীষ্টানদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান (অবগ্রাহন) হয় এবং পুকুরটি চার্চ অব বাংলাদেশ ঢাকা ডায়োসিসান ট্রাষ্ট এর নামে রেকর্ড রয়েছে। এরপরও আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক অসৎভাবে গত ১০ এপ্রিল রাত ১১টায় ড্রেজার মেশিন দিয়ে পুকুর ভরাটের কাজ শুরু করে। এতে তাদের কাছে পুকুর ভরাট বন্ধের আবেদন জানালে তারা সে বিষয়ে কর্নপাত না করে কাজ চালাতে থাকে। এর প্রক্ষিতে ১১ এপ্রিল সকাল ১১টায় যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ফজলুল হক এভিনিউতে মানববন্ধনের জন্য চার্চের সকল ধর্ম যাজকগন একত্রিত হয়। এ সময় সমিতির আইনজীবীরা তাদের উপর অতর্কিত হামলা ও মারধর করে ব্যানার ফেস্টুন ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় পুলিশ কমিশনারের কাছে অভিযোগ ও নিরাপত্তার আবেদন করা হয়। আবেদনের প্রেক্ষিতে কোন ব্যবস্থা না গ্রহন করায় এ আবেদন করা হয়।