আদালত অবমাননা ও মিথ্যা তথ্য দেয়ায় মুলাদী থানার এস.আই নাছিরের বিরুদ্ধে বিচারকের মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আদালতে মিথ্যা তথ্য এবং আদেশ অমান্য করায় মুলাদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করেছেন বিচারক। গতকাল রোববার বরিশালের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট তরুন বাছাড় বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেন।
চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক অমিত কুমার দে মামলাটি আমলে নিয়ে অভিযোগটি বিচার বিভাগীয় তদন্তের জন্য মেট্রোপলিন ম্যাজিষ্ট্রেট মো. রফিকুল ইসলামকে নির্দেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানাগেছে, মুলাদী থানায় জমি জমা সংক্রান্ত জিআর ১৫৩/১৩ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাসির উদ্দিন। তিনি মামলার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত না করেই বাদী এবং আসামীদের মধ্যে মিমাংসার কথা উল্লেখ করে গত ৩১ জানুয়ারি আদালতের কাছে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেন।
এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৭ মার্চ আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদনের উপর নারাজী দেয় মামলার বাদী মুলদী উপজেলার দড়িরচর গ্রামের বাসিন্দা কাওসার আলম অলি। নারাজী আমলে নিয়ে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট তরুন বাছাড় গতকাল রবিবার তদন্তকারী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে চূড়ান্ত প্রতিবেদনের উপর শুনানীর দিন ধার্য্য করেন।
কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তা নাছির উদ্দিন কোন প্রকার কারণ দর্শানো ছাড়াই গতকাল ধার্য্য দিনে আদালতে অনুপস্থিত থাকেন। আর তাই আদালত অবমাননা করায় তদন্তকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাটি দায়ের করেন বিচারক।
মামলার বিষয়ে জানতে মুলাদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাছির উদ্দিন এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পেপার পত্রিকায় লিখলে আমার কিছুই হবে না। এমন উক্তি করে মোবাইলের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন তিনি।