আদালত অবমাননায় শেবাচিম হাসপাতালের ৩ কর্মকর্তাকে শোকজ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ আদালতের আদেশ অমান্য করায় শেবাচিম হাসপাতালের ৩ উধ্বর্তন কর্মকর্তাকে শোকজ করেছে আদালত। ৫ নভেম্বর স্ব শরীরে আদালতে হাজির হয়ে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন বিচারক। গতকাল সোমবার এ নির্দেশ দেন অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক মোঃ শিহাবুল ইসলাম। শোকজ প্রাপ্তরা হলো সহকারী পরিচালক (প্রশাসন), অর্থপেডিক্স ইউনিট-২ এর সহকারি রেজিষ্ট্রার ডাঃ খাদেমুল ইসলাম, সার্জারী ইউনিট ৪ এর সহকারি রেজিষ্ট্রার ডাঃ মোঃ মাহমুদুল হাসান। আদালত সূত্রে জানাগেছে, গত বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর বাকেরগঞ্জের পাদ্রিশিবপুর পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে কামরুজ্জামান সুমনকে কুপিয়ে জখম করে দেনাদার ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় সুমনের বাবা বাদী হয়ে ৩ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা করে। পরবর্তীতে সুমনের জখমের মামলায় মেডিকেল সনদে প্রকৃত বিষয়ে কোন নির্দিষ্ট মতামত না থাকায় চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল অপূর্ণাঙ্গ করে আদালত। পরবর্তীতে বিভিন্ন তারিখে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এসআই মোঃ হানিফ ডাক্তারদের নিকট জখমের সনদের আবেদন করলেও একবার দিয়েছি বলে এড়িয়ে যায়। গত ১৩ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে পূর্ণাঙ্গ সনদ প্রদানের জন্য শেবাচিমের পরিচালককে নির্দেশ দেয় আদালত। পরে সহকারী পরিচালক লিখিতভাবে জানান, সুমন সার্জারি ইউনিট ৪ থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করেছে। গত ৮ অক্টোবর সার্জারী ৪ ইউনিট থেকে জানায়, সেখানে চিকিৎসা নেয়নি সুমন। আদালতের একাধিকবার নির্দেশ সত্ত্বেও ডাক্তারদের এমন বিরোধপূর্ণ বক্তব্যের মাধ্যমে সনদ প্রদান করা হয়নি। এর প্রেক্ষিতে গতকাল ধার্য তারিখে সনদ না পাওয়ায় বিচারক আদালত অবমাননার জন্য ওই আদেশ দেন।