আদালতের এজলাসে বিচার কাজ চলাকালীন আইনজীবীকে মারধরের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সিনিয়র আইনজীবীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতে মামলার বিচার কাজ চলাকালীন সময়ে এজলাসের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। সমিতির এক জুনিয়র আইনজীবী মামলা পরিচালনা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তাকে মারধর করেন বলে বিশ্বস্তসূত্রে জানা গেছে। এ বিষয়ে বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির কাছে একটি অভিযোগ দিয়েছেন মারধরের শিকার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আইনজীবী মেট্রোপলিটন দ্রুত বিচার আদালতের এপিপি সরফুদ্দিন আহম্মেদ।
আদালত সুত্রে জানা গেছে, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট অনুতোষ চন্দ্র বালা’র আদালতে বিচারাধিন একটি যৌতুক মামলার পরিচালনাকে কেন্দ্র করে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আইনজীবী সরফুদ্দিন আহম্মেদ ও তার সহকারী নজরুল ইসলামকে মারধর করে মুলাদী উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা এ্যাড তরিকুল ইসলাম দিপু মোল্লা।
এ বিষয়ে এ্যাড. সরফুদ্দিন আহম্মেদ জানান, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট অনুতোষ চন্দ্র বালা’র আদালতে বিচারাধিন একটি যৌতুক মামলা পরিচালনার জন্য বাদি পক্ষ তাকে পাওয়ার অফ এটর্নী দেয়। এতে গতকাল ওই মামলায় আসামির জামিন শুনানির জন্য তিনি বাদি পক্ষের হয়ে ওই জামিন শুনানীতে অংশগ্রহন করে। এদিকে ওই মামলা এর পরিচালনা করে আসছিলেন এ্যাড. তরিকুল ইসলাম দিপু মোল্লা। কিন্তু বাদি পক্ষ তাকে বাদ দিয়ে এ্যাড সরফুদ্দিন আহম্মেদকে পরিচালনার দায়িত্ব দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এ্যাড দিপু। গতকাল সিনিয়র জুডিসিয়াল আদালতে ওই মামলা পরিচালনার কাজে যায় এ্যাড. সরফুদ্দিন আহম্মেদ। খবর পেয়ে সেখানে হাজির হন এ্যাড. তরিকুল ইসলাম দিপু মোল্লা। এসময় আদালত কক্ষের সামনে সরফুদ্দিন আহম্মেদ’র মহুরী নজরুল ইসলামকে পেয়ে মারধর করে। পরবর্তিতে আদালত কক্ষে প্রবেশ করে দিপু মোল্লা। এজলাসে আদালতের সকল স্টাফ ও উপস্থিত সকল আইনজীবীদের সম্মুখে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আইনজীবী সরফুদ্দিন আহম্মেদকে মারধর শুরু করে দিপু মোল্লা। এক পর্যায় সেখানে উপস্থিত আইনজীবীরা সরফুদ্দিন আহম্মেদকে উদ্ধার করে আদালত কক্ষ থেকে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় আইনজীবী সমিতিতে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বলেও জানান এ্যাড. সরফুদ্দিন আহম্মেদ। এ বিষয়ে জানার জন্য এ্যাড. তরিকুল ইসলাম দিপু মোল্লার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তার সাথে কথা বলা যায়নি।
এ ব্যাপারে বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. মোখলেচুর রহমান বাচ্চু জানান, সরফুদ্দিন আহম্মেদ’র দেয়া একটি লিখিত অভিযোগ হাতে পেয়েছেন তারা। সমিতির কার্যকরী সভায় ওই অভিযোগ উত্থাপন করা হবে এবং কমিটির যে সিদ্ধান্ত হয় ওইদিনই তা জানানো হবে।