আজ বাংলা নববর্ষ

রুবেল খান॥ আজ মঙ্গলবার শুভ বাংলা নববর্ষ-১৪২২। সেই সাথে বিদায় নিলো স্মৃতি বিজরীত ও ঘটনা বহুল ১৪২১ বঙ্গাব্দ। আজ পহেলা বৈশাখ বর্ণাঢ্য আয়োজনে নববর্ষকে স্বাগত জানাবে বাঙালী। কেননা ১লা বৈশাখ বাঙালি জনজীবনে এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় হয়ে আছে চিরকালের জন্য। তাই যুগ যুগ ধরে বাংলা নববর্ষের একটি দিনের অপেক্ষায় থাকেন বাঙালি জাতী। কেননা যুগের হাওয়ায় আমরা প্রায় ভুলতে বসেছি আমাদের মাটি ও বাঙালী সংস্কৃতিকে। মি¯্র ভাষা ভাসি ও সংস্কৃতির চর্চায় আমরা বাঙালী জাতী অবহেলা করে আসছি আমাদের আপন সৃষ্টিজাত সংস্কৃতি, জাত, ভাব পরিচয়কে। তাই নতুন বঙ্গাব্দের ১লা বৈশাখ এলেই বাঙালী জাতীকে মনে করিয়ে দেয় আমরা মাছে-ভাতে বাঙ্গালী। একটি দিনের জন্য হলেও সৃষ্টিজাত সংস্কৃতি, জাত, ভাব এবং পরিচয় তুলে ধরতে বাঙালী সাজে এবং নানা আয়োজনের মাধ্যমে নিজেদের নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি আমরা বাঙালী।
প্রতি বছরের ন্যায় এবারেও পহেলা বৈশাখের সেই আয়োজনের দিক থেকে পিছিয়ে নেই বরিশালবাসী। ব্যাপক উৎসহ, উদ্দিপনা আর বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে আজ বাংলা নববর্ষকে বরন করে নিবেন তারা।
বর্ষবরন কর্মসূচির অংশ হিসেবে সরকারী এবং বেরসকারী ভাবে নেয়া হয়েছে নানা কর্মসূচি।
কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ মঙ্গলবার পহেলা বৈশাখ সকাল ৭টায় বরিশাল জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সার্কিট হাউজে অনুষ্ঠিত হবে প্রাণবন্ত বাঙালি লোকজ অনুষ্ঠান। সকাল ৮টায় বরিশাল প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হবে বাঙালী জাতির গৌরব ও ঐতিহ্যবাসী পান্তা-ইলিশ ভোজন উৎসব।
এছাড়া সকাল সাড়ে ৬টায় বরিশাল বিএম স্কুল মাঠে বরিশাল নাটক’র সহযোগিতায় উদীচী বরিশাল সংসদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হবে প্রভাতি অনুষ্ঠিন। একই মঞ্চে রাখি ও ঢাক উৎসবের উদ্বোধন করবেন বরিশাল জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল আলম ও মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার শৈবাল কান্তি চৌধুরী। পরবর্তীতে সকাল ৮টায় বিএম স্কুল প্রাঙ্গন থেকে উদীচী ও চারুকলার যৌথ উদ্যোগে বের হবে এক বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা। মঙ্গল শোভাযাত্রাটি নগরীর বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করবে। শোভাযাত্রায় স্থান পাবে উদীচী, বরিশাল নাকট, উত্তোরন ও প্রথম আলো বন্ধু সভা সংগঠন কর্মীদের নির্মিত বিভিন্ন ব্যানার, ফেষ্টুন, প্লাকার্ড, বাঘ, দোয়েল পাখি, জিরাপ, কুমির, কুলা, কলস সহ বাংলার নানা ঐতিহ্য। পাশাপাশি উদীচীর তিন দিন ব্যাপী বৈশাখী আয়োজনে প্রতিরাতে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
এছাড়াও উদীচীর উদ্যোগে বিএম কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে তিন দিন ব্যাপী বৈশাখী মেলা।
নগরীর বান্দ রোড প্লানেট পার্কে আয়োজন করা হয়েছে বৈশাখী উৎসব। প্লানেট পার্কে বৈশাখী উৎসব উপলক্ষে ১লা বৈশাখ থেকে তিন দিন ব্যাপী বৈশাখী মেলা ছাড়াও থাকছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
বর্ষ বরন উপলক্ষে চারুকলার উদ্যোগে সকাল ৯টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বরিশাল সিটি কলেজ প্রাঙ্গনে লোকজ সংস্কৃতি প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে।
বরিশাল শব্দাবলী গ্রুপ থিয়েটারের পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয়েছে বৈশাখ উৎসবের। নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিকাল ৪টায় সাংসদ এ্যাড. তালুকদার মো. ইউনুস’র লাঠি খেলা উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে তিন দিন ব্যাপী তাদের বৈশাখ উৎসব শুরু হবে। শব্দাবলীর বৈশাখ উৎসব কর্মসূচির প্রথম দিন ১লা বৈশাখ থাকছে সঙ্গীতানুষ্ঠান, নৃত্য, নাটক। ২ বৈশাখ আলোচনা সভা, সঙ্গীতানুষ্ঠান, নৃত্য, জারী ও পালাগান এছাড়া সমাপনি দিন ৩ বৈশাখ আলোচনা, সম্মাননা, নৃত্য এবং দেশের খ্যাতিমান সঙ্গীত শিল্পী ও বরিশালের গৌরব হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল’র একক সঙ্গীতানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তিন দিনের বৈশাখ উৎসব সমাপ্ত হবে।