আজ প্রচারিত হবে মাহামুদুল হাসান টিপু’র নাটক “অ্যানালগ ভালোবাসা”

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশালের সন্তান মাহামুদুল হাসান টিপুর পরিচালনায় নির্মিত নাটক “অ্যানালগ ভালোবাসা” দেখতে চোখ রাখুন আজ রাত ৯টা ৫ মিনিটে- এন টিভিতে। আসিফ মেহ্দীর রচনা, মুহম্মদ আবু রাজীনের চিত্রনাট্য ও এম প্রডাকশনের প্রযোজনায় চিত্রগ্রহন করেছেন দানিয়েল ড্যানি। নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন- মোশাররফ করিম, রোবেনা রেজা জুঁই, তারিক স্বপন, হেভেন খান, আসমা সাবিহা রিংকু, তন্ময় সাহা, তানভীর লিমন, এ্যানি সহ আরো অনেকে। প্রাডাকশন স্টীল : মার্টিন হান্নান।
ডিজিটাল মোশাররফ করিমের “অ্যানালগ ভালোবাসা”য় আপনারা দেখেতে পাবেন- মফস্বলের একটি তিনতলা বাড়ি “স্রোতস্বীনি”। বাড়িটি জারিফের বাবা তৈরি করে গিয়েছেন। জারিফের বাবা-মা আজ বেঁচে নেই। বর্তমানে জারিফ স্ব-পরিবারে বাড়িটির তিনতলায় থাকেন। প্রায় এক যুগ আগে পারিবারিক সিদ্ধান্তে জারিফ বিয়ে করেন ঐশীকে। তাদের একমাত্র ছেলে তূর্য ক্লাস টু-তে পড়ে। মূলত বাড়ি ভাড়ার টাকাতেই চলে জারিফের ছোট্ট সংসার। ব্যবসা বা কাজের প্রতি আগ্রহ জারিফের কোনো কালেই ছিল না। অন্য কোনভাবে অর্থ উপার্জন করে পরিবারের স্বচ্ছলতা কিছুটা বাড়াবেন- সে চেষ্টাও নেই। তার যাবতীয় সামাজিকতার ব্যপারটি, ভার্চুয়াল জগতেই সীমাবদ্ধ। ছেলেটিও হয়েছে বাপের ধাঁচের। সারাক্ষন কম্পিউটারে গেমস নিয়ে মেতে থাকে। ঐশী স্বামী-ছেলেকে নিয়ে কিছুতেই নিজের সংসারটাকে ঠিক ফর্মে আনতে পারছিলেন না। একসময় হতাস হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছোটবোন মৃদুলার সাহায্য চান। মৃদুলা বোনকে সাহায্যের জন্য ব্যাগ-সুটকেস নিয়ে দুলাভাইয়ের বাসায় হাজির হন। এরপর দু’বোন মিলে একের পর এক আইডিয়া বের করতে থাকে। কিন্তু প্রতিটি আইডিয়াকে ব্যার্থ প্রমান করে জারিফ ও তূর্য তাদের কাজ চালিয়ে যায়। একসময় হতাস হয়ে পরেন ঐশী। ঘটে যায় একটি অনাকাংক্ষিত ঘটনা। যে ঘটনাটি, পুরোপুরি পাল্টে দেয় জারিফ ও তুর্যকে।
কি ঘটেছিল! জানতে হলে দেখতে হবে খন্ড নাটক- “অ্যানালগ ভালোবাসা”।