আইএইচটি’র শিক্ষার্থী হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব হেলথ এন্ড টেকনোলজী’র (আইএইচটি) ৭ম পর্বের শিক্ষার্থী সাদিয়া আক্তারকে নৃশংসভাবে হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ১০টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হলের সামনে মানববন্ধন করে ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীবৃন্দ। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন আইএইচটি’র অধ্যক্ষ ডা. মো. নজরুল ইসলাম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, শিক্ষক ডা. জাফর হোসেন, ডা. ফরিদউদ্দিন সহ অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষর্থী-কর্মচারীরা। এসময় তারা এই নৃশংস হত্যাকান্ডের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান।
উল্লেখ্য, গত ১৯ নভেম্বর নগরীর ডেফুলিয়া এলাকার বাসিন্দা আলমগীর খানের মেয়ে সাদিয়া আক্তার বাসা থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়ে আর বাসায় ফেরেনি। এরপর ২২ নভেম্বর বরিশাল কোতোয়ালী মডেল থানায় জিডি করেন তার বাবা আলমগীর খান। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২ ডিসেম্বর পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলা থেকে মো. সিরাজ (২৪) এবং মো. হাফিজ আকন (১৫) নামের দুজনকে আটক করে বরিশাল কোতয়াীল মডেল থানার পুলিশ। তারা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে স্বীকার করে, শিক্ষার্থী সাদিয়ার সাথে মোবাইলে প্রেমের অভিনয় করেন। এরপর বাগেরহাটের শ্মরণখোলা উপজেলার রাজাপুর গ্রামের আ.রব হাওলাদারের ছেলে নাজমুল ইসলাম নয়নের (৩০) সহায়তায় সাদিয়াকে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বড়মাছুয়া এলাকার ডেকে নিয়ে ৩ জন মিলে গণধর্ষণ করে। এসময় সাদিয়া চিৎকার করলে গলা টিপে হত্যা করে বলেশ^র নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত সাদিয়ার লাশের সন্ধান পাওয়া যায়নি।