অবিলম্বে রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ করুন- এ্যাড. সরোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মিয়ানমারে সাম্প্রদায়িক আগ্রাসন, রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদ ও পালিয়ে আসা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়ার দাবীতে নগরীতে মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ ও মিছিল করেছে বিএনপি, সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদ ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নগরীর সদর রোডে অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে পৃথক পৃথক ভাবে এই জোরালো প্রতিবাদ কর্মসূচিতে উত্তাল হয়ে ওঠে সদর রোড এলাকা। এছাড়াও বাদ জুমা নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলিমদের জন্য নগরীর মসজিদে মসজিদে বিশেষ দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এর পূর্বে গতকাল বেলা ১১টার দিকে মায়ানমারে সাম্প্রদায়িক আগ্রাসন, মুসলিম রোহিঙ্গাদের উপর জুলুম নির্যাতনের প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে বরিশাল মহানগর বিএনপি। কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান ফারুক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও মহানগর বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব এ্যাড. মজিবুর রহমান সরোয়ার।
প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় মজিবুর রহমান সরোয়ার বলেন, চলমান জাতিগত সহিংসতার মধ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মিয়ানমার সফর করলেন। কিন্তু রোহিঙ্গা নিধনের বিষয়ে তিনি কোন কথা বললেন না। অথচ তিনি পরোক্ষভাবেই অং সাং সুচির পক্ষে সাফাই গেয়েছেন।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ভারত এক কোটি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছিলো। তৎকালীন সময়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী শরণার্থী শিবিরগুলো পরিদর্শন করেছিলেন। কিন্তু বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী মায়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গা শিবিরগুলোয় খোঁজও নিতে যাননি। অমানবিক সহিংসতা বন্ধে কুটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধি ও জাতিসংঘকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সরোয়ার বলেন, যারা গনতন্ত্রকামী দেশ বলে দাবী করছেন তারাই আবার এই গনহত্যাকে সমর্থন জানায়। সরকার বিশ্ববাসীকে জাগ্রত না করে মসনদ টিকিয়ে রাখাতে চেষ্টা করছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কথায় চুপচাপ রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীও। আজ দেশের ক্রান্তিকালে সকল রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সুশিল সমাজ সহ সর্বস্তরের মানুষকে মতবিরোধ ও ভেদাভেদ ভুলে এক হয়ে নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলমানদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসার পাশাপাশি বিশ্বকে জাগ্রত করার জোর আহ্বান জানান তিনি।
মানববন্ধনে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি মনিরুল আহসান তালুকদার মনির, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জিয়া উদ্দিন সিকদার জিয়া, এ্যাড. আলী হায়দার বাবুল, সহ-সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুল হক তারিন, সৈয়দ আকবর, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম ফরিদ, মীর জাহিদুল কবির জাহিদ, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাড. এনায়েত হোসেন বাচ্চু, জেলা যুবদলের সভাপতি এ্যাড. পারভেজ আকন বিপ্লব, আবুল হাসান লিমন, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আফরোজা খানম নাসরিন, মহানগর যুবদলের সাধারন সম্পাদক ও ছাত্রদল জেলা শাখার আহ্বায়ক মাসুদ হাসান মামুন, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক এ্যাড. নাজিম উদ্দিন পান্না প্রমূখ।
এদিকে সকাল ১০টার দিকে অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ এর আয়োজন করে সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদ। “মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ বিশ্বজুড়ে জাতিগত নিপীড়ন রুখে দাড়াও সাম্প্রদায়িক আগ্রাসনের বিরুদ্ধে” এই শ্লোগান নিয়ে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন সমন্বয় পরিষদের সাবেক সভাপতি কাজল ঘোষ। অপূর্ব দাসের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শিশু সংগঠক জীবন কৃষ্ণ দে, রাখাল চন্দ্র দে, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ দুলাল, সমন্বয় পরিষদের সাধারন সম্পাদক মিন্টু কর, জাসদ বরিশাল জেলার সভাপতি এ্যাড. আঃ হাই মাহবুব, এ্যাড. নজরুল ইসলাম চুন্নু, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান, এনায়েত হোসেন শিপলু, আঃ হালিম, মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, বার্মায় রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির ওপর বর্বর ও অমানবিক হামলা বন্ধে বিশ্ব বিবেক এখনই সোচ্চার হওয়া প্রয়োজন। একই সাথে বিশ্বজুড়ে সমগ্র জাতিগত নিপীড়ন বন্ধ করার জন্য আহ্বান জানান তারা।
অপরদিকে সকাল সাড়ে ৯টায় উত্তর ও দক্ষিন জেলা বিএনপির যৌথ আয়োজনে সদর রোডের অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র সভাপতি এবায়েদুল হক চাঁন এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. আবুল কালাম শাহিন, কোতয়ালী বিএনপি’র সভাপতি এ্যাড. এনায়েত হোসেন বাচ্চু, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম সুজন প্রমূখ।
এছাড়াও মায়ানমানের রোহিঙ্গাদের হত্যা নির্যাতন বন্ধের দাবীতে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট। এসময় তারা রোহিঙ্গা সমস্যার আন্তর্জাতিক সমাধানের দাবী জানান। মিছিল পূর্বক অশ্বিনী কুমার হলের সামনে সমাবেশ এবং পরে সদর রোড এলাকায় প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।