বরগুনা শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় দুই শতাধিক টিউবয়েল অকেজো | | ajkerparibartan.com বরগুনা শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় দুই শতাধিক টিউবয়েল অকেজো – ajkerparibartan.com
বরগুনা শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় দুই শতাধিক টিউবয়েল অকেজো

2:57 pm , December 4, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরগুনা পৌর এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডে স্থাপিত প্রায় দুই শতাধিক টিউবয়েল অকেজো হওয়ার কারনে পানির অভাবে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বিভিন্ন ওয়ার্ডের পৌর বাসির। নতুন কিংবা পুরাতন সব ধরনের টিউবয়েলে এ সমস্যা। পানি না ওঠার কারনে এক এলাকার বাসিন্দাদের অন্য এলাকা থেকে পানি সংগ্রহ করতে হয় বিভিন্ন ওয়ার্ডের মানুষকে। বরগুনা পৌরসভার অন্তর্গত ৯টি পৌর ওয়ার্ডেই এই একই চিত্র। সবচেয়ে বেশী পানির সমস্যা ১,২,৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের। এই ৩টি ওয়ার্ডে বসানো দুই শতাধিক টিউবয়েলের মধ্যে মাত্র ১০-১২টি টিউবয়েল আছে মোটা মুটি। বাকি সব টিউবয়েল পানি শূন্য। পানি ডেলেও পানি ওঠানো যায় না। অনেক পৌরবাসি সাপ্লাই ও পুকুরের পানির উপরউ নির্ভর করে তাদের পানির চাহিদা পুরণ করছেন। নতুন টিউবয়েল কিছু কিছু ওয়ার্ডে বসালেও অল্প কিছু দিনের মধ্যে তা থেকেও ঠিক মত পানি উঠে না। পৌর এলাকার চরকলোনী, কালীবাড়ি, নয়াকাটা, সোনাখালী, মাইঠা, খাড়াকান্দা, ক্রোক সহ পৌর শহরের অধিকাংশ এলাকার টিউবয়েলের একই চিত্র। পৌর সভার বাসিন্দাগন এ সমস্যার কারনে পৌর কর্তৃপক্ষের নিকট বার বার আবেদন জানিয়ে কোন সুফল পাচ্ছে না। পৌর কর্তৃপক্ষ বলেছেন পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ার কারনে এই সমস্যা দেখা দিয়াছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ ঠিকাদারদের মাধ্যমে টিউবয়েল বসানোর ফলে এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যাক পাইপ না বসানোর কারনে টিউবয়েল গুলো খুব অল্প দিনের মধ্যেই ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পরছে। এ ব্যাপারে পৌর মেয়র মোঃ শাহাদাৎ হোসেনের দৃষ্টি আকর্ষন করা হলে তিনি জানান যে, কিছু কিছু ওয়ার্ডের টিউবয়েল খারাপ হওয়ার কারনে পানির সমস্যা হচ্ছে এ ব্যাপারে আমি অবগত। নতুন টিউবয়েল বরাদ্ধ পেলে নতুন করে বিভিন্ন ওয়ার্ডে আমরা টিউবয়েল বসানোর কার্যক্রম শুরু করব।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT