মহানগর আ'লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নতুন রেকর্ডের অপেক্ষা | | ajkerparibartan.com মহানগর আ’লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নতুন রেকর্ডের অপেক্ষা – ajkerparibartan.com
মহানগর আ’লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নতুন রেকর্ডের অপেক্ষা

2:59 pm , December 3, 2019

খান রুবেল ॥ বরিশাল মুক্ত দিবসে অনুষ্ঠিত হবে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। আর এ আয়োজন হবে মহানগর আওয়ামী লীগের ইতিহাসের সর্ববৃহৎ আয়োজন। তাই এ সম্মেলন ঘিরে এরই মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে নগরজুড়ে। তাছাড়া সম্মেলনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ নেতাদের মিলন মেলায় রূপ নিতে যাচ্ছে মহানগর। কেননা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, উপদেষ্টা, প্রেসিডিয়াম সদস্যসহ হেবিওয়েট নেতারা অংশ নিবেন এ সম্মেলনে। আমন্ত্রন জানানো হচ্ছে বরিশাল বিভাগের সকল নেতাদের। দলীয় সূত্রে জানাগেছে, ‘সর্বশেষ ২০১২ সালে বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হয়। ওই সম্মেলনে বিসিসি’র সাবেক মেয়র শওকত হোসেন হিরন ও আফজালুল করিম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তাছাড়া জেলায় আলহাজ¦ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এবং এ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান।
এদিকে শওকত হোসেন হিরনের মৃত্যুতে মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি হলেও এ ক্ষেত্রে সম্মেলন বা ভোটাভোটি হয়নি। সে হিসেবে টানা সাত
বছর পরে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন হতে যাচ্ছে। তাই সম্মেলনকে ঘিরে নেতা-কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দিপনার যেন শেষ নেই।
আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ‘সাত বছর নগরীর সদর রোডস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জেলা ও মহানগর সম্মেলন এক সঙ্গে হয়েছিলো। আর এবার সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে। বঙ্গবন্ধু উদ্যানে বিশাল এলাকাজুড়ে চলছে প্যান্ডেল নির্মান কাজ। করা হচ্ছে বিশাল অস্থায়ী মঞ্চ। তাছাড়া সম্মেলনকে ঘিরে রহমতপুরে বরিশাল বিমানবন্দর থেকে বঙ্গবন্ধু উদ্যান পর্যন্ত সড়কের উপরে নির্মান করা হচ্ছে একের পর এক দৃষ্টিনন্দন তোড়ন। এরই মধ্যে সদর রোড, জিলা স্কুল মোড়সহ বিভিন্ন স্থানে দৃষ্টিনন্দন তোড়ন নির্মান সম্পন্ন হয়েছে। করা হবে আলোকসজ্জা।
আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ জানায়, ‘৮ ডিসেম্বর বরিশাল মুক্ত দিবস। ১৯৯৭ সালের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধকালিন সময় পাকিস্তানি হানাদারমুক্ত হয়েছিলো বরিশাল। তাই মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের জন্য এই দিনটিকেই বেছে নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সম্মেলনকে স্মরনীয় করে তুলতে আওয়ামী লীগের হেবিওয়েট নেতাদের মিলন মেলা করার প্রস্তুতি চলছে।
সম্মেলনের প্রধান আকর্ষন অর্থাৎ প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আর উদ্বোধন করবেন মন্ত্রী আলহাজ¦ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ-এমপি। আর প্রধান বক্তা হিসেবে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাসিমের অংশগ্রহনের কথা রয়েছে।
এদের বাইরে বিশেষ অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, আমির হোসেন আমু, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য মেজর (অব.) হাফিজ মল্লিক, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পদক শাম্মি আহম্মেদ, সদস্য গোলাম কিবরিয়া চিনু, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী স.ম রেজাউল করিমসহ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ’র অংশগ্রহনের কথা রয়েছে। এর বাইরে বরিশাল বিভাগের ৬ জেলার আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা, মন্ত্রী এবং এমপিদের আমন্ত্রন জানানো হবে মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে। যদিও অতিথিদের তালিকা এখনো চূড়ান্ত হয়নি বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে।
এদিকে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, ‘বরিশাল মহানগরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিতব্য এ সম্মেলনকে ঘিরে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। কেননা কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল রয়েছেন ঢাকায়। সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীর হোসেন রয়েছেন তার আইন পেশা নিয়ে। যে কারনে সকল দায় দায়িত্ব আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহকেই সামলাতে হচ্ছে। মেয়র হিসেবে নগরবাসির ভালোমন্দ দেখভালের পাশাপাশি সম্মেলনের প্রস্তুতি নিয়ে দিন রাত সমান তালে পার করছেন তিনি। অনেকটা দম ফেলার সময় পাচ্ছেন না তরুন ও উদ্যোমী এই নেতা।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT