ছিনতাইকৃত ইলিশ মাছ উদ্ধার চেয়ারম্যানের ভাইসহ আটক ৩ | | ajkerparibartan.com ছিনতাইকৃত ইলিশ মাছ উদ্ধার চেয়ারম্যানের ভাইসহ আটক ৩ – ajkerparibartan.com
ছিনতাইকৃত ইলিশ মাছ উদ্ধার চেয়ারম্যানের ভাইসহ আটক ৩

3:04 pm , September 14, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পটুয়াখালীর মহিপুর থেকে গোপালগঞ্জ যাওয়ার পথে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কে ছিনতাই হওয়া ৫মন ইলিশ মাছ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি ছিনতাইয়ের ঘটনায় ব্যবহৃত দুটি পিকআপ ও ঘটনার সাথে জড়িত ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো, পিকআপ মালিক বিশ্বজিৎ সরকার, পিকআপ চালক তাপস সরকার ও তাদের সহযোগী মোঃ মনিরুজ্জামান। যদিও ঘটনার সাথে জড়িত মুন্না মোল্লা ওরফে নূরে আলম ও রাশেদ নামে আরো ২ জনকে এখনো গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি, তবে তাদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। জানা গেছে, মুন্না মোল্লা বরিশাল সদর উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান লিটন মোল্লা ও বিসিসি’র ৩০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কালাম মোল্লার আপন ছোট ভাই। গতকাল শনিবার বেলা ১২ টায় নগরীর লুৎফর রহমান সড়কস্থ মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) এর কার্যালয়ে এই তথ্য জানানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ মোকতার হোসেন জানান, মাছ ছিনতাইয়ের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার বাদী জালাল পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর বন্দর থেকে দেড়লাখ টাকা মূল্যের ৫ মন ইলিশ মাছ ক্রয় করেন। মৎস্য ব্যবসায়ী জালাল ও তার শ্যালক এলাহি গত ১০ সেপ্টেম্বর ইলিশ মাছগুলো একটি পিকআপ ভ্যান ভাড়া করে গোপালগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। ওই পিকআপ ভ্যানের চালক তাপস সরকার ১১ সেপ্টেম্বর ভোর রাতের দিকে পিকআপটি বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানাধীন অমৃত গুড়া মশলার ফ্যাক্টরির সামনের ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে থামায়। এসময় সেখানে মোটরসাইকেলে করে পলাতক আসামী মুন্না মোল্লা ওরফে নূরে আলম ও গ্রেফতারকৃত মনিরুজ্জামান হাজির হন। ঘটনার সময় গ্রেফতার অপর আসামী বিশ্বজিৎ সরকার পাশের রাস্তার মোড়ে অবস্থান নেয়। পরে তারা ইলিশ বহনকারী পিকআপটিকে চালক তাপসের সহায়তায় মহাসড়কের পাশের শাখা রোডে নিয়ে যায় এবং মৎস্য ব্যবসায়ী জালাল ও তার শ্যালককে পিকআপ থেকে নামিয়ে মারধর করে এবং হত্যার হুমকি দেয়। এরপরপরই অন্য একটি পিকআপ এনে ইলিশ মাছগুলো সেটাতে তুলে নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে আসামীরা। অপরদিকে তাপস চালক তার পিকআপ নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। ১২ সেপ্টেম্বর বিষয়টি এয়ারপোর্ট থানাকে অবহিত করা হলে পুলিশের ৩টি দল অভিযানে নামে। অভিযানে নেমে ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ৩ জনকে গ্রেফতার এবং ছিনতাই হওয়া ৫ মণ ইলিশ উদ্ধার করা হয়। এদিকে গ্রেফতার হওয়া আসামীরা আদালতে ঘটনার সাথে জড়িত সকলের নাম উল্লেখ করে জবানবন্দি দিয়েছে। পাশাপাশি আদালতের মাধ্যমে মাছগুলো ব্যবসায়ীদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মোঃ মোকতার হোসেন। তিনি আরো জানান, ছিনতাইয়ের ঘটনার আগে মহিপুর থেকে বরিশাল আসতে পিকআপ চালক তাপস সরকারের মোবাইলে প্রায় ৩৫ টির মতো কল আসে। যার মাধ্যমে সে নিজের অবস্থান জানাচ্ছিলো ছিনতাইকারীদের।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT