সাউদার্ন সুইমিং ইনস্টিটিউটের সাঁতার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ | | ajkerparibartan.com সাউদার্ন সুইমিং ইনস্টিটিউটের সাঁতার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ – ajkerparibartan.com
সাউদার্ন সুইমিং ইনস্টিটিউটের সাঁতার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

2:57 pm , September 7, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীতে সাউদার্ন সুইমিং ইনস্টিটিটের আয়োজনে সাতার প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। নগরীর নথুল্লাবাদ ব্লগ-এ লুৎফর রহমান সড়কের নিজস্ব ক্যাম্পাসে গতকাল শনিবার এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান।
সাউদার্ন গ্রুপের চেয়ারম্যান মাহমুদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা শাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) প্রশান্ত কুমার দাস, সহকারী কমিশনার সুব্রত বিশ্বাস দাস, বরিশাল জেলা ক্রীড়া অফিসার হোসাইন আহমেদ, বরিশাল বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি মোঃ আসাদুজ্জামান খসরু, বিসিসি কাউন্সিলর মোঃ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের সাবেক পরিচালক আলমগীর হোসেন উকিল, জাকির হোসেন সুলতান, সাউদার্ন ইনস্টিটিউটের প্রধান শিক্ষক যতীন দাস। এছাড়াও সাউদান মেডিকেল এন্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সাঁতার প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণকারীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে জেলা প্রশাসক সাঁতার প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন এবং বিজয়ী মেডেল পরিয়ে দেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান।
লালমোহনের আখ চাষীদের মুখে প্রাপ্তির হাসি!
মো. জসিম জনি, লালমোহন ॥ লালমোহনে এবছর আখ চাষ করে অধিক হারে লাভবান হয়েছেন চাষীরা। এতে করে আখ চাষীদের মুখে প্রাপ্তির হাসির ঝলক দেখা দিয়েছে। এবছর লালমোহনে গে-ারী ও দুইশত আট জাতের আখ বেশি চাষ হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্য মতে যার পরিমাণ প্রায় ৬৫ হেক্টর জমিতে এ দুই জাতের আখ চাষ হয়েছে।
উপজেলার ধলিগৌরনগর ইউনিয়নের আখ চাষী মো. রাসেল জানান, এবছর তিনি প্রায় ৮০ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করেছেন। এতে খরচ হয়েছে প্রায় ৯০ হাজার টাকা। আর আখ বিক্রি খরচ বাদ দিয়ে লাভ হতে পারে প্রায় ৯০ থেকে ১ লক্ষ টাকা।
একই ইউনিয়নের আখ চাষী আরজু ও ছিদ্দিক জানান, তারা এ বছর দুজনে প্রায় ১২৮ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করেছেন। যাতে খরচ হয়েছে প্রায় দেড় লক্ষ টাকার মত। তবে আখ বিক্রি করলে খরচ বাদ দিয়ে প্রায় ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকার মত লাভ হতে পারে বলে তাদের ধারণা। এতে করে তাদের মুখে হাসির ঝিলিক ঝরে পড়ছে।
অন্যদিকে উপজেলার লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের মিজানুর রহমান নামের এক আখ চাষী জানান, তিনি ৪০ শতাংশ জমিতে এবছর আখ চাষ করেছেন। তবে তার ক্ষেতে পানি হওয়ার কারণে আখের অনেক ক্ষতি হয়েছে। তবুও তার আশা সব খরচ বাদ দিয়ে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা লাভ হতে পারে।
এব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এ.এফ.এম শাহাবুদ্দিন বলেন, আমরা আখ চাষীদের চাষাবাদে আগ্রহ করার জন্য বিভিন্ন পরামর্শ ও বিনা মূল্যে সার দিয়ে থাকি। যাতে তারা আখ চাষে আগ্রহী হয়। কারণ আখ চাষে কম খরচে অধিক লাভবান হওয়া যায়। এবছর লালমোহন উপজেলায় ৬৫ হেক্টর জমিতে গে-ারী ও দুইশত আট জাতের আখ চাষ করা হয়েছে। আমরা সর্বক্ষণ এসব চাষীদের সাথে যোগাযোগ করেছি। এবং রোগ ও পোকা মাকড় থেকে সর্তক থাকতে তাদের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেছি। এবছর গত বছরের তুলনায় আখ চাষীদের লাভের পরিমান অনেক বেশি।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT