দক্ষিণাঞ্চলে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত | | ajkerparibartan.com দক্ষিণাঞ্চলে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত – ajkerparibartan.com
দক্ষিণাঞ্চলে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত

2:32 pm , September 1, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মহানগরী সহ দক্ষিণাঞ্চলের সরকারী টেলিযোগাযোগ ব্যাবস্থা মারাত্মক সংকটাপন্ন। বিগত কয়েক বছর ধরে চরম উদাসীনতা আর অবহেলার মধ্যে দিয়ে চলমান এ অঞ্চলের প্রায় ৪৩ হাজার ধারন ক্ষমতার টেলিফোন এক্সচেঞ্জগুলোর কারিগরি ত্রুটি ইতোমধ্যে গ্রাহকদের চরম বিপাকে ফেলতে শুরু করেছে। ফলে গ্রাহক সংখ্যাও ১৫ হাজারের নিচে নেমে এসেছে। এসব বিষয় দেখারও কেউ আছে বলে মনে হয়না। প্রায় প্রতিদিনই বরিশাল সহ সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলের সাথে এনডব্লিউডি ও আইএসডি টেলিফোন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। একই সাথে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বিটিএসএল-এর ইন্টারনেট পরিসেবা ছাড়াও উপজেলাগুলোর সাথে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থাও। গত দুদিন ধরে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বরিশাল মহানগরীর সবগুলো টেলিফোন এক্সচেঞ্জই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে একটি বিভাগীয় সদরের টেলিফোন এক্সচেঞ্জ সমুহ বন্ধ থাকলেও তা থেকে উত্তরনের কোন লক্ষন দেখা যাচ্ছে না। সুষ্ঠ সেবা না পেয়ে ইতোমধ্যে হাজার হাজার গ্রাহক তাদের টেলিফোন সমর্পন করেছেন। অনেক টেলিফেন সমর্পন না হলেও তা বছরের পর বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। কিন্তু এসব বিষয় দেখভালের দায়িত্ব বিটিসিএল-এর যেসব কর্তা ব্যক্তিদের ওপর তাদেরই বেশীরভাগ সময় খুজে পাওয়া যায়না বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকি বরিশাল মহানগরীতে বিটিসিএল-এর কর্তব্যপরায়ন ও দায়িত্বশীল কর্মকর্তারও অভাব প্রকট। কোন গ্রাহকের টেলিফোন বিকল হলে তা ত্রুটিমূক্ত করতে দিনের পর দিন অভিযোগ দিয়েও সচল হচ্ছে না। সম্প্রতি বরিশালের সরকারী কৌশলীর বাসার টেলিফোন সচল করতে জিএম পর্যন্ত অভিযোগ দিতে হয়েছে বলে জানা গেছে। বরিশাল মহানগরীতে ২১, ৬১ ও ৭১ দিয়ে শুরু চীনা তিনটি টেলিফোন এক্সচেঞ্জের ধারন ক্ষমতা প্রায় ১৫ হাজার। কিন্তু গ্রাহকসংখ্যা ইতোমধ্যেই সাড়ে ৫হ াজারে হ্রাস পেয়েছে। অথচ নিকট অতীতেও এ নগরীতে একটি টেলিফোন সংযোগের জন্য মানুষ মন্ত্রী পর্যন্ত তদবির করতেন। বিগত কয়েক মাস ধরে ভূগর্ভস্থ অপটিক্যাল ফাইবারে ত্রুটি সহ ট্রান্সমিশন ব্যবস্থার গলদের কারনে ঘন ঘন সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছে। এর আগে ব্যাটারীর অভাবে ৬১ দিয়ে শুরু এক্সচেঞ্জটি প্রায়ই বিকল হয় যেত। এখন সে সমস্যা না থাকলেও নতুন গোলযোগে একই সাথে নগরীর ৩টি টেলিফোন এক্সচেঞ্জই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ফলে পুলিশ স্টেশন, দমকল, হাসপাতাল ও এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস সহ অনেক অত্যাবশ্যকীয় ও জরুরী পরিসেবাও বিপন্ন হয়ে পড়ছে প্রতিনিয়ত। বিষয়টি নিয়ে বরিশাল টেলিযোগাযোগ অঞ্চলের জিএম-এর সাথে আলাপ করা হলে তিনি জানান, এখানের টেলিফোন এক্সচেঞ্জগুলো দুই দশকের পুরনো। তারপরেও আমরা চেষ্টা করছি ভাল সেবা দিতে। এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদেরকে সঠিক নজরদারী সহ তদারকী করতে বলবেন বলে জানান জিএম।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT