চার জেলায় ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৪ | | ajkerparibartan.com চার জেলায় ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৪ – ajkerparibartan.com
চার জেলায় ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৪

2:53 pm , July 29, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। এ পর্যন্ত ৫৪ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা গ্রহন করেছেন এই হাসপাতালে। যার মধ্যে ৩০ জন এখনো চিকিৎসাধিন রয়েছেন। এদের মধ্যে ২২ জন পুরুষ ও ৮ জন নারী। এছাড়া বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী, বরগুনা ও ভোলা জেলায় ১০ জন করে মোট ৩০ জন ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা গ্রহন করছেন বলে বিভাগীয় স্বাস্থ্য অফিস সূত্রে জানাগেছে। তবেএখন পর্যন্ত কোন রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, গত ১৬ জুলাই থেকে ২৯ জুলাই দুপুর পর্যন্ত এডিস মশার কামরে ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত হওয়া ৫৪ জন রোগীকে চিকিৎসা দিয়েছেন তারা। যার মধ্যে ২৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত কোন রোগীর মৃত্যু হয়নি। তাছাড়া রোববার পর্যন্ত (২৮ জুলাই) ২৫ জন ডেঙ্গু জ¦রের রোগী ছিলো। তাদের মধ্যে ৬ জন সোমবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। আর নতুন ভর্তি হয় আরো ১১ জন। সে অনুযায়ী বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধিন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৩০ জন। পরিচালক বলেন, আক্রান্ত রোগীদের সাথে আমরা কথা বলেছি। এরা কেউ বরিশালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়নি। এখন পর্যন্ত যারা চিকিৎসা গ্রহন করেছেন তাদের মধ্যে কেউ ঢাকায় বসবাস করেন অথবা ঢাকায় আসা যাওয়া করেছেন।
তিনি জানান, শেবাচিম হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসায় কোন ত্রুটি হচ্ছে না। মেডিসিন বিভাগের আওতায় তাদের যথাযথ চিকিৎসা দেয়াসহ ওয়ার্ডের মধ্যে রোগীদের সার্বক্ষনিক মশারীর মধ্যে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
তিনি বলেন, ৫শ বেডের এই হাসপাতালটি বর্তমানে কাগজে কলমে ১ হাজার বেডে উন্নীত করা হয়েছে। তবে প্রতিদিন দেড় হাজারের মত রোগী ভর্তি থেকে চিকিৎসা গ্রহন করছেন। বাড়তি রোগীদের বেড দিতে না পারায় তাদের ওয়ার্ডের মধ্যে বা বারান্দার মেঝেতে জায়গা দিতে হচ্ছে। এ কারনেই ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ডের ব্যবস্থা করা সম্ভব হচ্ছে না।
অপরদিকে বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানাগেছে, বিভাগের ৬ জেলার মধ্যে শুধুমাত্র পটুয়াখালী, বরগুনা ও ভোলা জেলায় ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত রোগীর খোঁজ পাওয়া গেছে। এই ৩ জেলার মধ্যে বরগুনা সদর হাসপাতালে ১০ জন ও পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ জন ও ভোলায় ১০ জন চিকিৎসা গ্রহন করছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT