বাইশারী কলেজ'র সভাপতি পদে এ্যাড. মাওলাদ হোসেন সানা পূর্নবহাল | | ajkerparibartan.com বাইশারী কলেজ’র সভাপতি পদে এ্যাড. মাওলাদ হোসেন সানা পূর্নবহাল – ajkerparibartan.com
বাইশারী কলেজ’র সভাপতি পদে এ্যাড. মাওলাদ হোসেন সানা পূর্নবহাল

3:15 pm , July 10, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নানা জটিলতা পেরিয়ে অবশেষে বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী সৈয়দ বজলুর হক কলেজ’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হলেন অ্যাড. মোঃ মাওলাদ হোসেন সানা। তিনি গত ২০১৫ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কতৃক ৪ বছরের জন্য সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পান এই কলেজের। কিন্তু চলতি বছর স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. শাহে আলম’র একটি ডিউ লেটারের কারণে সভাপতি পদ নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হয়। যদিও উচ্চ আদালতের নির্দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পূর্বের পদে অধিষ্ঠিত হন সানা। কিন্তু ফের হাইকোটে আপিল করে এমপির ডিউ লেটারে সভাপতি প্রার্থী বানারীপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম ফারুক। গত মঙ্গলবার শুনানী এই আপিলের শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে এ্যাড. মাওলাদ হোসেন সানার পক্ষে আইনী লড়াই করেন এ্যাড. ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন। আপিল বিভাগের চেম্বার জজ গোলাম ফারুকের আপিল রিফিউজ করে এ্যাড. মাওলাদ হোসেন সানাকে স্ব পদে বহাল করে।
জানা গেছে, ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় বানারীপাড়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী সৈয়দ বজলুর হক কলেজ। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সন্ধ্যা নদীর পশ্চিম পাড়ে ৫ ইউনিয়নের মানুষের শিক্ষা বিস্তারে ভূমিকা রেখেছে এই কলেজ। কলেজটির প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ছিলেন সৈয়দ আমিনুল ইসলাম জাকির। কলেজটি ডিগ্রী কলেজ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হলেও বর্তমানে কলেজটিতে অনার্স কোর্স চালু হয়েছে। এই কলেজ শাখা ছাত্রলীগ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক, বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগ’র সাধারণ সম্পাদক ও বরিশাল জেলা পরিষদ এর প্যানেল চেয়ারম্যান অ্যাড. মোঃ মাওলাদ হোসেন সানা ২০১৫ সালের ২৩ ডিসেম্বর এই কলেজের সভাপতির দায়িত্ব পান। এই কলেজের গভানিং বডির সভাপতি হিসেবে ৪ বছরের জন্য দায়িত্ব প্রদান করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ৪ বছরের এই মেয়াদ শেষ হতে না হতেই নতুন করে জটিলতার সৃষ্টি হয়। জানা গেছে, চলতি বছরের ১১ মার্চ বরিশাল ২ (বানারীপাড়া -উজিরপুর) এর সংসদ সদস্য শাহে আলম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বরাবর একটি ডিউ লেটার প্রদান করে। ঐ লেটারের প্রেক্ষিতে গত ৩০ মার্চ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মোঃ মাওলাদ হোসেন সানাকে ধন্যবাদ পত্র প্রদান করেন। পাশাপাশি ঐ কলেজের গভনিং বডির সভাপতি হিসেবে বানারীপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম ফারুককে মনোনীত করে। কিন্তু হুট করে সভাপতি পরিবর্তনের কারণে কলেজে সকল কাজে স্থবিরতা চলে আসে। পরে পূর্বের অ্যাড. মোঃ মাওলাদ হোসেন সানা উচ্চ আদালতে একটি রীট পিটিশন দাখিল করেন। এ বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে পূর্বের সভাপতি অ্যাড. মোঃ মাওলাদ হোসেন সানার নির্ধারিত মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ঐ পদ বহাল রাখার নির্দেশ প্রদান করে উচ্চ আদালত। তার ই ধারাবাহিকতায় গত সপ্তাহে দায়িত্বভার গ্রহন করেন অ্যাড. মোঃ মাওলাদ হোসেন সানা। পরে আবার আপিল করে গোলাম ফারুক। তবে আপিল বিভাগের চেম্বার জজ গোলাম ফারুকের আপিল রিফিউজ করে সানাকে সৈয়দ বজলুর হক কলেজ’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে পূনবহাল করে। এ ব্যাপারে অ্যাড. মোঃ মাওলাদ হোসেন সানা বলেন, গত পৌনে ২ মাস নানা ধরনের জটিলতার কারণে কলেজের চলমান কার্যক্রমে স্থবিরতা চলে আসে। আমি বরাবরের মত আবারও কলেজের কার্যক্রম গতিশীল করবো।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT