আনুষ্ঠানিকতা শুরুর পূর্বের শেষ জুমার জামাতে প্রার্থীদের নিরব প্রচারনা | | ajkerparibartan.com আনুষ্ঠানিকতা শুরুর পূর্বের শেষ জুমার জামাতে প্রার্থীদের নিরব প্রচারনা – ajkerparibartan.com
আনুষ্ঠানিকতা শুরুর পূর্বের শেষ জুমার জামাতে প্রার্থীদের নিরব প্রচারনা

6:49 pm , July 6, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আনুষ্ঠানিক প্রচারনা শুরুর পূর্বের শেষ জুমায় গতকাল মূল প্রতিদ্বন্দ্বি মহাজোট ও ২০ দলীয় জোটের দুই প্রার্থী জুমার জামাতে অংশগ্রহন সহ একাধিক অনানুষ্ঠানিক কর্মসূচীর মাধ্যমে নিরব প্রচারনায় ছিলেন। অপরদিকে জাতীয় পার্টি প্রার্থীও বৈধতা পাবার পরে কিছুটা চাঙ্গা মনোভাব নিয়ে নিরব প্রচারনায় ফিরেছেন। বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আপীল দায়েরের বৃহস্পতিবার শেষ বেলায় জাতীয় পার্টি প্রার্থী ইকবাল হোসেন তাপসের মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষনা করা হয়। ফলে এবার বরিশাল সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী থাকছেন ৭জন। তবে এখনো বরিশালে ভোটের পরিবেশ অনুযায়ী মহাজোট প্রার্থী সাদিক আবদুল্লাহ ও ২০ দলীয় জোট প্রার্থী মুজিবুর রহমান সারোয়ারের মধ্যেই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা সীমাবদ্ধ রয়েছে। নগরী সহ সমগ্র দক্ষিণাঞ্চল জুড়েই আলোচনায় এ দুই প্রার্থী। কিন্তু সব কিছুর আগে ভোটার ও সাধারন মানুষ সহ রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের কাছে প্রথম ও শেষ প্রশ্ন ‘আগামী ৩০ জুলাই বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভোটগ্রহণ হবে কিনা?’ ‘ভোটাররা কতটা নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারবেন ও ভোট দিতে পারবেন’, এমন প্রশ্নও আলোচনায় উঠে আসছে সর্বত্র।
এদিকে গতকাল মহাজোট প্রার্থী সাদিক আবদুল্লাহ নগরীর বরিশাল ল’ কলেজ জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। সেখানে তিনি উপস্থিত সাধারন মানুষের সাথেও কুশল বিনিময় করেন। এছাড়াও তিনি নগরীর চরের বাড়ী এলাকায় একজনের নামাজে জানাযায় অংশ নেন। এছাড়াও, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেন।
অপরদিকে ২০ দলীয় জোট প্রার্থী মুজিবুর রহমান সারোয়ার গতকাল নগরীর পোর্ট রোড জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। তিনিও সেখানে উপস্থিত মুসুল্লীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন।
এছাড়া দুই প্রার্থীই নিজ নিজ বাসভবনে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে মতবিনিময় করছেন। নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডের নেতা-কর্মীরাই এখন নিজ নিজ মেয়র প্রার্থীদের বাসভবন মুখী। দিনরাতই তারা নিজ নিজ এলাকায় নির্বাচনী কৌশল নিয়ে মত বিনিময় করছেন। ফলে মহাজোট ও ২০ দলীয় জোট প্রার্থীদের বাসভবনে নেতাকর্মীদের ভির ক্রমশ বাড়ছে।
তবে প্রতিক বরাদ্বের পরেই আনুষ্ঠানিক প্রচারনা শুরু হবে। এছাড়াও বিশ্বকাপ ফুটবল ফাইনালের পড়ে বরিশাল সিটি নির্বাচনী প্রচারনায় গতি আরো বাড়বে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল। ফলে ১৬ জুলাই থেকেই বরিশাল সিটি নির্বাচনী প্রচারনা চুড়ান্ত গতি লাভ করবে বলেও আশা করছে মহলটি। এমনকি এ মহানগর ও জেলার বাইরে থেকেও দুই দলেরই অনেক নেতৃবৃন্দের বরিশাল সিটি নির্বাচনের প্রচারনায় অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। তবে ঐসব নেতৃবৃন্দ ২০ জুলাইয়ের পরেই বরিশালের মাঠে নামবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
এদিকে নির্বাচন কমিশন বরিশাল সিটি নির্বাচনে ১২৩টি ভোট কেন্দ্রের নাম গেজেট আকারে প্রকাশ করেছে। ২০১৩-এর নির্বাচনে এনগরীতে কেন্দ্রের সংখ্যা ছিল ৯৮টি। এবার ২৩টি কেন্দ্রের ৭৫০টি বুথে সিটি নির্বাচনের ভোট গ্রহন করা হবে বলে গেজেটে বলা হয়েছে। আগামী ৩০জুলাই অনুষ্ঠেয় বরিশাল সিটি নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৪৬ হাজার ১৬৬। এর মধ্যে ১ লাখ ২০ হাজার ৭৩০ মহিলা ভোটার।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
: SYSTEM DEVELOPMENT :
SPIDYSOFT IT GROUP