মুলাদীতে সিগারেট নিয়ে ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট | | ajkerparibartan.com মুলাদীতে সিগারেট নিয়ে ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট – ajkerparibartan.com
মুলাদীতে সিগারেট নিয়ে ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট

3:17 pm , June 16, 2019

মুলাদী প্রতিবেদক ॥ মুলাদীতে সিগারেট নিয়ে পাইকারী ও খুচরা ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট। জানাগেছে, ৩০জুলাই বাজেট কার্যকরি হাওয়ার কথা থাকলেও ১মাস পুর্বেই বাজেটকে পুজি করে প্রতিবছরের ন্যয় এ বছরও ব্রিটিশ টোবাকোর কর্মকর্তা কর্মচারীদের সহযোগীতায় সিগারেট ষ্টক করে সিন্ডিকেট করছে মুলাদী বন্দরের পাইকারী ও খুচরা দোকানদাররা। বাজেট ঘোষনার পর থেকেই মুলাদী বন্দরের খুচরা দোকান গুলোতে এক শলা ব্যানচন সিগারেট ১৫ টাকা, গোল্ডলিফ ১২ টাকা, নেভি ৭টাকা, হলিউড ৬টাকা বিক্রি করে আসছে যাহা পুর্বের দামের চেয়ে প্রতি শলায়  ২থেকে ৩টাকা বেশি। এব্যাপারে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে জানতে চাওয়া হলে তারা জানান, ব্রিটিশ টোবাকোর এস আর রা তাদেরকে সিগারেট না দেয়ায় বাধ্য হয়ে তারা বন্দরের পাইকারী দোকান রহমত স্টোর, ভাই ভাই স্টোর চৌধুরী স্টোর থেকে প্রতি প্যাকেটে ২০-৩০টাকা বেশি দিয়ে কিনে আনার কারনে তারা এত বেশি বিক্রি করছে। এদিকে পাইকারী দোকান মালিকদের কাছে জানতে চাইলে তারা জানান, তারা কম্পানীর নির্ধারিত মুল্যে বিক্রি করছেন। এব্যাপারে ব্রিটিশ টোবাকো মুলাদী অফিসের ম্যানেজারের সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, আমরা কোম্পানির নির্ধারিত মুল্যে এস আর দের মাধ্যমে দোকানে দোকানে সিগারেট দিয়ে আসি। কিন্তু একাধীক সুত্র জানিয়েছে, প্রতি বছর বাজেটের পুর্বে ব্রিটিশ টোবাকোর লোকজন বন্দরের পাইকারী বিক্রেতাদের সাথে সিন্ডিকেট করে তাদের কাছে সিগারেট বিক্রি করায় তারা বিপুল পরিমানে সিগারেট স্টক করে রাখে, যার ফলে খুচরা বাজারে সিগারেটের টান থাকায় দোকানদাররা ইচ্ছেমত দাম নিয়ে সিগারেট বিক্রি করে। ব্রিটিশ টোবাকোর ম্যানেজার সোহাগের বিরুদ্ধেও সিগারেট স্টক করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। খুচরা দোকানদাররা জানান, সপ্তাহে ৬দিন ব্রিটিশ টোবাকোর এস আর দের মার্কেটে এসে সিগারেট দিয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও তারা ঠিক মত আসে না এমনকি দোকানদারদের চাহিদা মত সিগারেট তাদেরকে দেয় না, এস আররা দোকানে এসে ১-২ প্যাকেট সিগারেট দিয়ে বাকি সিগারেট সিন্ডিকেট করে বিক্রি করে বলে অভিযোগ দোকানদারদের। ক্রেতাদের সাথে এধরনের সিন্ডিকেটের বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন এমনটিই প্রত্যাশা ক্রেতাদের। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন জানান, ভোক্তাধীকার আইনে এ সকল অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অচিরেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT