যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদন্ড | | ajkerparibartan.com যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদন্ড – ajkerparibartan.com
যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদন্ড

6:58 pm , June 26, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ হিজলায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে করা মামলায় লোভী স্বামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এছাড়াও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবু আজাদ শামীম এ দন্ড দেন। ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত ইউসুফ সিকদার (৩০) হিজলার ইন্দুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা হারুন সিকদারের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় ইউসুফ আদালতে উপস্থিত ছিল। ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর ফয়জুল হক ফয়েজ জানান, ২০১২ সালে হিজলার মোমানিয়া গ্রামের ফারুক ফকিরের মেয়ে কুলসুমকে বিয়ে করে ইউসুফ। বিয়ের পর তাদের একটি পুত্র সন্তান হয়। পুত্রের বয়স ২ বছর হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন সময় যৌতুকের দাবি করে ইউসুফ। এসময় যৌতুক হিসেবে ইউসুফকে ৩ লাখ টাকা দেয়। এর কিছুদিন পরই পুনরায় ২ লাখ টাকা দাবি করে ইউসুফ। এতে অপারগতা প্রকাশ করলে ২০১৬ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি কুলসুমকে বাবার বাড়ি যেতে না দেয়া সহ হত্যার হুমকি দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় ১২ ফেব্রুয়ারি কুলসুমের বাবা ফারুক ফকিরকে তার মেয়ে মারা গেছে বলে জানায়। এঘটনায় ঐ দিনই ফারুক ফকির বাদী হয়ে ইউসুফ সহ তার পরিবারের ৬ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করে। একই বছরের ৯ মে ইউসুফকে অভিযুক্ত করে হিজলা থানার এসআই আসাদুজ্জামান হাওলাদার চার্জশীট জমা দেয়। আসাদুজ্জামান চার্জশীটে উল্লেখ করেন, যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই ইউসুফ তার স্ত্রীর উপর নির্যাতন করতো। ঘটনার দিন কুলসুমের বাবাকে যৌতুকের জন্য মুঠোফোনে হুমকি দেয় ইউসুফ। ঐদিন রাতে যৌতুক নিয়ে কুলসুমের সাথে বাকবিতন্ডা হয় ইউসুফের। একপর্যায়ে কুলসুমকে মারধর করে শ^াসরোধ করে হত্যা করে ইউসুফ। পিপি আরও জানান, তদন্তকারী কর্মকর্তা চার্জশীট আদালতে জমা দিলে ইউসুফের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিয়ে বিচারকাজ শুরু করা হয়। এর ধারাবাহিকতায় ১৬ জনের মধ্যে ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করে ঐ দন্ড দেয়া হয়। আদালতের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে নিহত কুলসুমের বাবা ফারুক জানান, দেরিতে হলেও তিনি তার মেয়ে হত্যার বিচার পেয়েছেন। এজন্য তিনি আদালতের কাছে কৃতজ্ঞ। অপরদিকে ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত ইউসুফ সিকদারের পরিবারের লোকজন আদালতের রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, রায়টি একপাক্ষিক হয়েছে। তারা আদেশের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপীল করবেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT