বিয়াল্লিশ দিনেও গ্রেফতার হয়নি দলিল লেখক রিয়াজ'র খুনি মাসুম | | ajkerparibartan.com বিয়াল্লিশ দিনেও গ্রেফতার হয়নি দলিল লেখক রিয়াজ’র খুনি মাসুম – ajkerparibartan.com
বিয়াল্লিশ দিনেও গ্রেফতার হয়নি দলিল লেখক রিয়াজ’র খুনি মাসুম

3:20 pm , May 30, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিগত বিয়াল্লিশ দিনেও গ্রেফতার হয়নি চাঞ্চল্যকর দলিল লেখক রেজাউল করিম রিয়াজ (৪০) এর প্রধান খুনি মাসুম। ঘটনার দিন হত্যার পরিকল্পনাকারী স্ত্রী এবং তার ৩২ দিনের মাথায় সহযোগী ইদ্রিস গ্রেফতার হলেও পরকিয়া প্রেমিক মাসুম রয়েছে আত্মগোপনে। এমনকি নিহতের বাড়ি থেকে জব্দকৃত মালামালের তালিকাও বাদি পক্ষের কাছে প্রকাশ করেনি পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার উদাসিনতা ও অনভিজ্ঞতার করনেই রিয়াজের পলাতক খুনি মাসুমকে গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না বলে অভিযোগ বাদী পক্ষের।
জানাগেছে, সম্পত্তি আত্মসাত ও সার্বিক দিক থেকে সুখে থাকতে গত ১৮ এপ্রিল পরকিয়া প্রেমিক ও তার সহকারীকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে চরমোনাই’র বুখাইনগরের বাসিন্দা দলিল লেখক রেজাউল করিম রিয়াজকে খুন করে দ্বিতীয় স্ত্রী আমিনা আক্তার লিজা। ঘটনায় সন্দেহজনকভাবে পুলিশ লিজাকে আটক করে। পরে স্বামীকে পরকিয়া প্রেমিক মাসুম ও ইদ্রিসকে নিয়ে হত্যার পরিকল্পনার কথা স্বীকার করেন তিনি। এর পর ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে লিজাকে আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়।
এদিকে ঘটনার ৩২ দিনের মাথায় গ্রেফতার করা হয় লিজা ও তার পরকিয়া প্রেমিকের সহযোগী ইদ্রিসকে। যিনি এলাকায় হাইল্যা নামে পরিচিত। তবে ঘটনার চল্লিশ দিন হয়ে গেলেও ধরা ছোয়ার বাইরে রয়েছে লিজার পরকিয়া প্রেমিক ও রিয়াজের সহকারী মাসুম।
বাদীর পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, ঘটনার পরে নিহতের ঘর থেকে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ অনেক মালামাল জব্দ করেছে। কিন্তু বাদী পক্ষের কাছে এখনো ওই জব্দ তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। নিহতের স্বজনদের অভিযোগ তদন্তকারী কর্মকর্তা রিয়াজ হত্যা মামলা নিয়ে কালক্ষেপন করছেন। মাসুমকে গ্রেফতারে তারা জোড়ালো কোন ভুমিকা নেই। তাছাড়া আসামীর পরিবারের সাথে তদন্ত কর্মকর্তার গোপন সখ্যতার অভিযোগ তুলেছেন তারা।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বশির আহমেদ বলেন, এরই মধ্যে হাইল্যা নামে পরিচিত আসামী ইদ্রিসকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ইদ্রিস স্বীকার করেছে যে তার সাথে মাসুমের যোগাযোগ ছিলো। তবে সে হত্যার সাথে জড়িত নয় বলে দাবী করেছে।
বশির আহমেদ বলেন, ইদ্রিসকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতের কাছে পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। কিন্তু এখনো রিমান্ড মঞ্জুর হয়নি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে মাসুমের বিষয়ে ভালো কোন তথ্য বেরিয়ে আসতে পারে। এসআই বশির  আরো বলেন, পলাতক আসামী মাসুমকে গ্রেফতারের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে। শুধু আমিই নই, ডিসি, এসি এবং ওসি স্যার সবাই বিষয়টিতে তৎপর। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে মাসুমের সকল মোবাইল নম্বর বন্ধ। যে কারনে প্রযুক্তির ব্যবহার করেও তার অবস্থান নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। আশা করছি খুব শীঘ্রই তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT