প্রথম রোজার স্বস্তি দিনভর বৃষ্টি | | ajkerparibartan.com প্রথম রোজার স্বস্তি দিনভর বৃষ্টি – ajkerparibartan.com
প্রথম রোজার স্বস্তি দিনভর বৃষ্টি

6:24 pm , May 18, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ প্রথম রোজায় রোজাদারদের স্বস্তি দিয়েছে প্রবল বর্ষন। দিনভর বিরামহিন বৃষ্টি স্বাভাবিক দিনের তুলনায় তাপমাত্রা কমিয়ে দেয়। সেই সাথে ছুটির দিন হওয়ার সুবাধে প্রয়োজন ছাড়া বাইরে দেখা মেলেনি মানুষের। তবে অঝোর ধারার বৃষ্টিতে নগরীতে সৃষ্টি করে জলাবদ্ধতার। সদর রোড, অক্সফোর্ড মিশন রোড, বগুড়া রোড সহ বিভিন্ন এলাকার রাস্তাগুলোতে হাটু সমান জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। যানবাহন শূণ্য হয়ে যায় ব্যস্ততম সদর রোডও। জনশূণ্য ছিল হাট বাজার।
বরিশাল আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানাগেছে, সকাল থেকেই আকাশ কিছুটা মেঘাচ্ছন্ন ছিলো। এমনকি বেলা ১২টা ৫ মিনিটে শুরু হয় প্রবল বর্ষন। সাথে ঝড়ো হওয়া এবং বজ্রপাত হতে থাকে। বিকাল ৪টা নাগাদ বৃষ্টির তীব্রতা কমে গেলেও থেমে থেকে বৃষ্টি ও বজ্রপাত হয়। নগরীতেই নয়, বিভিন্ন উপজেলায় দিনভর বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। অঝোর ধারায় বৃষ্টির ফলে মুহুর্তের মধ্যেই নগরীর প্রান কেন্দ্র সদর রোডের কাকলির মোড়ে সৃষ্টি হয় হাটু সমান জলাবদ্ধতা। সদর রোডের পাশাপাশি বগুরা রোড, গোরস্থান রোড, অক্সফোর্ড মিশন রোড এলাকা সহ নগরীর নি¤œাঞ্চল বৃষ্টির পানিতে প্লাবিত হয়। স্থানীয়দের অভিযোগ অপরিকল্পিত ইমারত নির্মান কাজের কারনেই বৃষ্টি হলেই নগরীতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। কেননা ইমারত নির্মানের সময় অবৈধ ভাবে রাস্তার উপর নির্মান সামগ্রীর স্তুপ করে রাখছে। যা বৃষ্টি এলেই পানিতে ধুয়ে ড্রেনে আটকে যাচ্ছে। তাই বৃষ্টির পানি ওইসব ড্রেন থেকে নামতে পারছে না। এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষের উদাসিনতাকেও দায়ি করেন ভুক্তভোগীরা।
এদিকে বরিশাল আওহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক প্রনব কুমার রায় জানান, বেলা ১২টা ৫ মিনিট থেকে শুরু হওয়া প্রবল বর্ষণের স্থায়ীত্ব ছিলো ৪টা ২০ মিনিট পর্যন্ত। বিকাল ৫টার পর পরই বৃষ্টি পুরোপুরি কমে গেলেও আবহাওয়া পরিস্থিতি শীতল ছিলো।
তিনি জানান, শুরু থেকে বিকাল ৪টা ২০ মিনিট পর্যন্ত মোট বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৪১ দশমিক ০৬ মিলিমিটার। এর পূর্বে গুরি গুরি বৃষ্টি হওয়ায় তা রেকর্ড যোগ্য হয়নি। তাছাড়া বৃষ্টির কারনে তাপমাত্রাও কম ছিলো। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ৩২ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বোনি¤œ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ২৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়ার বৈরীতার কারনে অভ্যন্তরীন নদীবন্দরগুলোকে ২নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়। এর ফলে বরিশাল নদী বন্দর থেকে ৬৫ ফুটের নিচে এমএল টাইপের যাত্রীবাহী লঞ্চ সহ অন্যান্য নৌযান চলাচল বন্ধ ছিলো বলে বন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
: SYSTEM DEVELOPMENT :
SPIDYSOFT IT GROUP