ফায়ার সার্ভিস'র রেশন'র জন্য সরবরাহ করা নিম্ন মানের ডাল আবারো ফেরত | | ajkerparibartan.com ফায়ার সার্ভিস’র রেশন’র জন্য সরবরাহ করা নিম্ন মানের ডাল আবারো ফেরত – ajkerparibartan.com
ফায়ার সার্ভিস’র রেশন’র জন্য সরবরাহ করা নিম্ন মানের ডাল আবারো ফেরত

6:28 pm , May 13, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল ফায়ার সার্ভিস’র রেশনের জন্য সরবরাহ করা নিম্নমানের ডাল আবারো ঠিকাদারকে ফেরত দেয়া হয়েছে। একই সাথে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঠিকাদারকে পুনরায় টেন্ডারের ডাল সরবরাহের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গতকাল রোববার সদর ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ নিম্নমানের দুই টন মশুর ডাল ফেরত দিয়েছেন। পাশাপাশি আজ থেকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী উন্নত মানের ডাল সরবরাহে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্তের সাথে তার লাইসেন্স বাতিলের সুপারিস করবে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ। বরিশাল ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর সহকারী পরিচালক মতিয়ার রহমান।
আজকের পরিবর্তনকে তিনি জানান, টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে ফায়ার সার্ভিসের তেল ও ডাল সরবরাহের কার্যাদেশ পেয়েছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান খায়ের হোসেন। এর মধ্যে ৮৮ টাকা দরে মশুর ডাল সরবরাহের শর্ত ও চুক্তি হয় ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে। গত ৬ মে কার্যাদেশ দেয়ার পর পরই অর্থাৎ ৬ মে ফায়ার সার্ভিসকে ৮ হাজার কেজি মশুর ডাল সরবরাহ করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।
সহকারী পরিচালক মতিয়ার রহমান বলেন, দরপত্রের সাথে দেয়া ডালের নমুনা সাথে সরবরাহকৃত ডাল মিলিয়ে দেখেন টেন্ডার কমিটি। এতে দেখা যায় নমুনার সাথে যে ডাল দেয়া হয়েছে তার সাথে সরবরাহকৃত ডালের মিল নেই। সরবরাহকৃত ওই ডাল নিম্নমানের হয়েছে। যে কারনে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে সরবরাহকৃত ডাল ফেরত দেয়া হয়। পাশাপাশি ৩ দিনের মধ্যে পুনরায় শর্ত অনুযায়ী ডাল সরবরাহ করতে বলা হয়। সে অনুযায়ী গতকাল রোববার পুনরায় ৫০ কেজি করে ৪০ বস্তা অর্থাৎ ২ টন মশুর ডাল সরবরাহ করে খায়ের হোসেন নামক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। কিন্তু দ্বিতীয় দফায় সরবরাহকৃত ওই ডালও নিম্নমানের প্রমান পায় টেন্ডার কমিটি।
ফায়ার সার্ভিসের ওই কর্মকর্তা বলেন, ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দু’বার দরপত্রের শর্ত ভঙ্গ করেছে। প্রথম দফায় তাকে তিন দিনের সুযোগ দেয়া হয়েছিলো। সর্বোশেষ গতকাল রোববার ঠিকাদারকে আরো ২৪ ঘন্টার সময় দেয়া হয়েছে। যার শুরু হবে আজ সোমবার অফিস থেকে। এই সময়ের মধ্যে ঠিকাদার চুক্তি অনুযায়ী উন্নতমানের ডাল সরবরাহে ব্যর্থ হলে নিয়ম অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বিশেষ করে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান যাতে করে পরবর্তীতে কোন দপ্তরে ঠিকাদারী কাজে অংশগ্রহন না করতে পারে সে জন্য তার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে। সেই সাথে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিলের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে শুপারিশ করা হবে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর সহকারী পরিচালক মতিয়ার রহমান।
উল্লেখ্য, গত ৯ মে ফায়ার সার্ভিসের রেশনের ডাল সরবরাহে দুর্নীতি ও প্রথম দফায় ৮ হাজার কেজি ডাল ফেরত দেয়ার বিষয়টি নিয়ে আজকের পরিবর্তনে সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদে দ্বিতীয় দফায় দুর্নীতির মাধ্যমে পুনরায় ডাল সরবরাহের পরিকল্পনার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছিলো। সবশেষ পরিবর্তনের কথাই সত্য হয়েছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী দ্বিতীয় দফায়ও নিম্নমানের ডাল সরবরাহ করতে গিয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষের কাছে ধরা পড়ে যায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। অবশ্য সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে খায়ের হোসেন এর লাইসেন্স এর অনুকুলে ডাল সরবরাহের কার্যাদেশ পেলেও ওই প্রতিষ্ঠানের হয়ে গোপি ঘোষ নামের ঠিকাদার দুর্নীতির আশ্রয় নিয়ে দফায় দাফায় নিম্নমানের ডাল সরবরাহ করে আসছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT