বাউফলে উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি রাজাপুর গ্রামে | | ajkerparibartan.com বাউফলে উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি রাজাপুর গ্রামে – ajkerparibartan.com
বাউফলে উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি রাজাপুর গ্রামে

5:55 pm , April 29, 2018

বাউফল প্রতিবেদক ॥ বাউফল উপজেলাধীন কালিশুরী ইউনিয়নের একটি অবহেলিত গ্রাম রাজাপুর। প্রায় ৭০০০ জনসংখ্যার বাস এই গ্রামে। রাজাপুরের রাস্তা ও ব্রীজের বেহাল অবস্থার কারনে বর্তমানে চরম ভোগান্তিতে আছে এলাকার জনগন। একটু বৃষ্টি হলেই হাটু কাদা ভেঙ্গে চলাচল করতে হয় এলাকার জনগনের। বর্ষাকালে স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে যায়। এখানে সেখানে বাঁশের সাঁকো তৈরী করে পার হতে হয় রাস্তা। নারী, শিশু ও বৃদ্ধদের চলাচলে ভোগান্তির যেন শেষ নেই। এ গ্রামে রয়েছে ১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ২টি দাখিল মাদ্রাসা, ৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১টি ডাকঘর, ১টি সমাজকল্যাণ অফিস এবং ২টি বাজার। কিছুদিন পরে এসবের সাথে যোগ হওয়ার কথা রয়েছে একটা ১০ শয্যাবিশিষ্ট কমিউনিটি ক্লিনিক। এতকিছু থাকা সত্ত্বেও এলাকায় নেই কোন পাকা রাস্তা। বর্ষাকালে হাঁটু সমান কাদা পানি দিয়ে প্রতিনিয়ত শত শত কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ অসংখ্য মানুষ যাতায়াত করতে গিয়ে মাঝে মাঝে ঘটে নানা ধরণের দুর্ঘটনা। মধ্য রাজাপুর মৃধা বাড়ি হয়ে ৩৫নং দক্ষিন রাজাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। স্কুলটির শত শত শিক্ষার্থীসহ হাজার মানুষের চলাচলকারী একমাত্র রাস্তাটিতে লাগেনি উন্নয়নের ছোয়া। অপর দিকে রাজাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং রাজাপুর ছালেহিয়া দাখিল মাদরাসা হতে হিজবুল্লাহ্ বাজার হয়ে রাজাপুর বালিকা মাদরাসা পর্যন্ত রাস্তাটি উন্নয়নের আমলে হয়নি কোন উন্নয়ন । বর্ষার পানিতে রাস্তাটি ব্যপক কর্দমাক্ত হয়ে যায়। হাটু সমান কাদায় সীমাহীন দুর্ভোগে পড়ে শিক্ষার্থীসহ হাজার ও মানুষ। সারা দেশে সরকারের ব্যাপক উন্নয়নের আভাস পাওয়া গেলেও সম্পুর্ণ ব্যতিক্রমী এলাকা কালিশুরী ইউপির রাজাপুর গ্রাম। রাজাপুরের ৮, ৯ নং ওয়ার্ডের গোসাই কবিরাজ বাড়ি সংলগ্ন জনগুরুত্বপূর্ণ ব্রীজটি দীর্ঘদিনের পুরোনো হওয়ায় লোহার ভীম ও পাটাতন ভেঙ্গে বর্তমানে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা। দুর্ঘটনার আতংকে রয়েছে সাধারন মানুষ সহ স্কুলমূখী শিক্ষার্থীদের অভিভাবক। ভাঙ্গা ব্রিজের ফাঁকে বাঁশ দিয়ে কোনোরকম চলাচল করছে শিক্ষার্থীসহ হাজার ও মানুষ । জানাগেছে, দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত জনপ্রতিনিধিগণ আশ্বাস দিয়ে আসলেও আজও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি কর্তৃপক্ষ। স্থানীয়রা জানান, ব্রীজের টেম্পার শেষ হয়ে গেছে। যে কোনো সময়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য স্বপন হাওলাদার বলেন, ব্রীজটির বর্তমান অবস্থা খুবই খারাপ। শিঘ্রই এটি মেরামত করা প্রয়োজন। এব্যাপারে চেয়ারম্যানকে অবহিত করা হয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নেসার উদ্দিন শিকদার জামাল বলেন, ব্রীজের ব্যাপারে উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। এলাকাবাসীর দূর্ভোগ লাঘবে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের যুগে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট ব্রিজটির মেরামতসহ এলাকার ভাঙ্গা রাস্তাঘাটের দ্রুত সংস্কার করার দাবী জানিয়েছেন সচেতন মহল।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT