মুলাদীতে কলেজ ছাত্র হত্যায় ১৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযুক্ত করে চার্জশীট জমা | | ajkerparibartan.com মুলাদীতে কলেজ ছাত্র হত্যায় ১৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযুক্ত করে চার্জশীট জমা – ajkerparibartan.com
মুলাদীতে কলেজ ছাত্র হত্যায় ১৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযুক্ত করে চার্জশীট জমা

6:58 pm , April 23, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মুলাদীতে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে কলেজ ছাত্র রকিবুল ইসলামকে হত্যার অভিযোগে করা মামলার চার্জশীট জমা দিয়েছে অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। চার্জশীটে ১৬ জনকে অভিযুক্ত করা হয়। এছাড়াও এজাহারনামীয় ৬ জনকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার আবেদন করেন সিআইডির পরিদর্শক শেখ মাসুদ করিম। গতকাল সোমবার চার্জশীটটি সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থাপন করা হলে এতে নারাজী জানায় বাদী রবিউল ইসলাম। আদালতের বিচারক রেজোয়ানা আফরিন নারাজিটি শুনানীর জন্য অপেক্ষমান রাখেন। চার্জশীটে অভিযুক্তরা হলো মুলাদীর সেলিমপুরের বাসিন্দা আনামত চৌকিদার, ছেলে সাদেক চৌকিদার, সাব্বির চৌকিদার, একই এলাকার রাশেদ হাওলাদার, তার ভাই রুবেল হাওলাদার ও জুয়েল হাওলাদার, বাদল হাওলাদারের ছেলে সলেমান হাওলাদার, রহিম খানের ছেলে দলিল উদ্দিন, তয়কা গ্রামের মৃত লাল মিয়ার ছেলে সালাম, তাইজুল ভূইয়া, তার ভাই মোমিন ভুইয়া, মিলন আকন, তার ভাই লেলিন আকন, টুমচর গ্রামের মৃত হারুন অর রশিদ মোল্লার ছেলে হুমায়ুন মোল্লা, বারেক হাওলাদারের ছেলে রিয়াজ, মৃত হামেদ হাওলাদারের ছেলে আলমগীর হাওলাদার। আদালতসূত্র জানায়, ২০১৬ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর মুলাদীর বাটমারা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে রকিবুল ইসলামের সাথে অভিযুক্তদের বিরোধ হয়। বিরোধের জের ধরে পরেরদিন সেলিমপুর বাজারের রব সরদারের দোকানের সামনে রকিবুলকে একা পেয়ে কুপিয়ে আহত করে অভিযুক্তরা। পরে রকিবকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। এঘটনায় রকিবুলের খালাতো ভাই রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে ১৭ সেপ্টেম্বর মুলাদী থানায় নামধারী ২১ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করে। মামলায় তদন্ত শেষে চার্জশীট আদালতে জমা দেয়া হলে বাদী তাতে নারাজী দেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT