ঘরে থাকার নির্দেশ উপেক্ষিত | | ajkerparibartan.com ঘরে থাকার নির্দেশ উপেক্ষিত – ajkerparibartan.com
ঘরে থাকার নির্দেশ উপেক্ষিত

3:01 pm , March 25, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ করোনা সংক্রামন এড়াতে লঞ্চ-বাসের পর এবার থ্রি হুইলারসহ সব ধরনের যান্ত্রিক যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পায়ে চালিত কিছু সংখ্যক রিক্সা পাওয়া গেলেও ভাড়া দ্বিগুন থেকে চারগুন উঠেছে। পুলিশ প্রশাসন বিভিন্ন স্থানে অটো রিক্সার মটরের বৈদ্যুতিক সংযোগ কেটে দিয়েছে। আবার কয়েক স্থানে নিয়ম ভঙ্গের দায়ে চালকদের মারধরের ঘটনাও ঘটছে। এদিকে সরকার সবাইকে নিজ নিজ বাসায় থাকতে বললেও গতকাল বুধবার অফিস-আদালত, ব্যাংক-বীমা ছিলো খোলা। তাই অফিসের এবং ব্যক্তিগত জরুরী প্রয়োজনে ঝুঁকিয়ে নিয়েই বাইরে বের হয়েছেন সাধারন মানুষ।
করোনা সংক্রামন এড়াতে সরকার সাধারন মানুষকে নিজ নিজ বাসায় থাকতে বলেছেন। এরপরও অনেক মানুষ অপ্রয়োজনে বাইরে ঘোরাফেরা করছেন। আইন প্রয়োগ করে তাদের ঘরে থাকতে বাধ্য করার কথা বলেন তিনি। গত মঙ্গলবার নগরী থেকে স্থানীয় এবং দূরপাল্লার লঞ্চ-বাস বন্ধ করে দেয়া হয়। তারপরও বুধবার ঢাকা থেকে বাসে নগরীতে এসেছেন শত শত যাত্রী। তাদের নগরী থেকে দূরের একটি স্ট্যান্ডে নামিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু বাস থেকে নেমে গন্তব্যে যাওয়ার জন্য কোন থ্রি হুইলার, অটোরিক্সাসহ অন্যান্য যানবাহন না পাওয়ায় বিপাকে পড়েন সাধারন যাত্রীরা। পায়ে চালিত কিছু সংখ্যক রিক্সা এবং ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল থাকলেও ভাড়া দ্বিগুন থেকে চারগুন পর্যন্ত নেয়া হয়েছে। এ কারনে সবার পক্ষে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তাই দুর্ভোগ সহ্য করে পায়ে হেটে গন্তব্যে যাচ্ছেন সাধারন যাত্রীরা।
ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট মো. এজাজ বলেন, সরকার সাময়িক সময়ের জন্য গণপরিবহন চলাচল নিষিদ্ধ করেছে। এই নির্দেশ বাস্তবায়নে কাজ করছেন তারা। রোগী এবং অতি জরুরী মানবিক প্রয়োজন ছাড়া কাউকে কোন যানবাহন ব্যবহারের সুযোগ দেয়া হচ্ছে না বলে তিনি জানান।
এদিকে করোনা সংক্রামন এড়াতে সবাইকে নিজ নিজ বাসায় অবস্থান এবং ওষুধ ও মুদী দোকান ছাড়া অন্যান্য দোকান বন্ধের নির্দেশ ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে। অনেকেই সরকারী নির্দেশ মেনে দোকান বন্ধ রেখেছেন। কেউ কেউ বাসায় অবস্থান করছেন। তারপরও অনেক স্থানে ওষুধ ও মুদী ছাড়া অন্যান্য দোকান খোলা রাখতে দেখা গেছে। অনেক মানুষকে দেখা গেছে রাস্তায়। তবে তারা প্রয়োজনের তাগিদে ঘরের বাইরে বের হওয়ার কথা জানিয়েছেন।
জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান জানান, সরকার গণপরিবহন ও মার্কেট বন্ধ এবং জনগনকে নিজ নিজ বাসায় থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। এই নির্দেশের পরও কিছু মানুষ অপ্রয়োজনে বাইরে ঘোরাফেরা করছেন। প্রয়োজনে তাদের ঘরে থাকতে বাধ্য করা হবে। সরকারের কার্যক্রম বাস্তবায়নে বরিশালে সেনা বাহিনী টহল শুরু করেছে বলে তিনি জানান।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT