যৌতুকের টাকা না পেয়ে শিক্ষিকা স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম বিচারের দাবীতে বরিশাল- পটুয়াখালী সড়কে মানববন্ধন | | ajkerparibartan.com যৌতুকের টাকা না পেয়ে শিক্ষিকা স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম বিচারের দাবীতে বরিশাল- পটুয়াখালী সড়কে মানববন্ধন – ajkerparibartan.com
যৌতুকের টাকা না পেয়ে শিক্ষিকা স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম বিচারের দাবীতে বরিশাল- পটুয়াখালী সড়কে মানববন্ধন

2:58 pm , March 16, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ১৫ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে দপদপিয়া তিমিরকাঠি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষিকাকে কুপিয়ে জখমকারীর স্বামীর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন হয়েছে। গতকাল সোমবার নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া উইনিয়নের জিরো পয়েন্টে ওই মানববন্ধন করে দপদপিয়া তিমির কাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, দপদপিয়া ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এর ডেপুটি কমান্ডার ও স্কুল শিক্ষিকা মারুফা আক্তার পপি’র বাবা আইউব আলী হাওলাদার, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওহাব খান, মুক্তিযোদ্ধা এটিএম জিন্নাত আলী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মোতালেব সিকদার, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ সিকদার, মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশার হাওলাদার প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন, ১৫ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে একজন স্কুল শিক্ষিকাকে অমানুষিক ভাবে নির্যাতন ও কুপিয়ে জখম করে স্বামী নুরে আলম। মাদক মামলায় যাবজ্জীবন সাজা হওয়ার পরও জামিনে এসে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তারা নুরে আলমের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবি করেন। শুক্রবার বিকেল ৪টায় মারুফা আলম পপিকে (৩৫) কুপিয়ে আহত করে স্বামী নুরে আলম। তিনি তিমির কাঠি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা এবং ওই এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা আইউব আলী হাওলাদারের মেয়ে। আহতকে উদ্ধার করে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত একই এলাকার আব্দুল ওহাব খানের ছেলে নুরে আলমকে আটক করেছে নলছিটি থানা পুলিশ। আহতের মা বিউটি বেগম জানান, ২০ বছর আগে নুরে আলম’র সাথে পপির বিবাহ হয়। সাংসারিক জীবনে তাদের দুই সন্তান রয়েছে। ২০১৫ সালে নুরে আলম ৭শ বোতল ফেন্সিডিল সহ র‌্যাবের হাতে আটক হয়। ওই মামলায় তাকে যাবজ্জীবন সাজা দেয় আদালত। নুরে আলম সেই মামলায় ১ বছরের জামিন পেয়েছে। নুরে আলম ব্যবসার জন্য স্ত্রী মারুফার কাছে ১৫ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। ঘটনার দিন বিকেল ৪টায় ঘুমে থাকা মারুফাকে চাকু দিয়ে বেধরক কুপিয়ে আহত করে স্বামী নুরে আলম। পরে মারুফার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে নুরে আলম পালিয়ে যায়। এ নিয়ে নিয়ে থানায় অভিযোগ করলে তাদের পারিবারের সকলকে পুড়িয়ে হত্যার হুমকিও দেয়। এমনকি জেল থেকে বেরিয়ে তাদেরকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT