ববি ভিসি'র কুশপুত্তলিকা দাহ শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল | | ajkerparibartan.com ববি ভিসি’র কুশপুত্তলিকা দাহ শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল – ajkerparibartan.com
ববি ভিসি’র কুশপুত্তলিকা দাহ শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল

3:26 pm , March 29, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) ভিসি প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হক এর পদত্যাগের দাবীতে মশাল মিছিল করেছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে তারা। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল ও কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। এর আগে বিকাল ৪টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে তারা। অপরদিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভূতকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় রাজধানীর কলাবাগানে লিয়াজু অফিসে সভায় বসেছে সিন্ডিকেট কমিটি। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হক এর সভাপতিত্বে সভাটি চলছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে কোন সিদ্ধান্তে পৌছতে পারেনি তারা। শিক্ষার্থীরা জানায়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের বাদ দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও বিজয় দিবস পালনের প্রতিবাদ করায় ভিসি এসএম ইমামুল হক শিক্ষার্থীদের রাজাকারের বাচ্চা বলে গালি দিয়েছেন। এর প্রতিবাদে গত ২৬ মার্চ থেকে তারা লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচি পালন করে আসছেন। লাগাতার কর্মসূচির অংশ হিসেবেবাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ফেসবুক পেজে তারা বিবৃতি দিয়ে শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার পর বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ও ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর তার ফেসবুক আইডিতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলকারী শিক্ষার্থীদের একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে তিনি লেখেন, লেজুরবৃত্তিক রাজনীতি করা চাটুকার, দালালদের দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চলে না। শিক্ষার্থীদের দাবিকে পূর্ণ সমর্থন করছি। এর আগে গতকাল দুপুরে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর তার ফেসবুক লেখেন, বরিশাল ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি মহোদয়গণ যৌক্তিক ও ন্যায়সঙ্গত দাবি-দাওয়া আদায়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদেরকে নিয়ে কু-রুচিপূর্ণ, হীন ও বিদ্বেষমূলক (রাজাকারের বাচ্চা) বক্তব্য দেয়ার মাধ্যমে শুধু ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই নয় পুরো দেশের ছাত্র সমাজকে ক্ষুদ্ধ ও অপমানিত করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির মতো সম্মানিত ও দায়িত্বশীল পদে থেকে শিক্ষার্থীদের নিয়ে এমন কু-রুচিপূর্ণ ও বিদ্বেষমূলক বক্তব্য শিক্ষাঙ্গনের দুরবস্থাকে চোখে আগুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়। যে শিক্ষকগণের কাছ থেকে শিক্ষার্থীরা নীতি-নৈতিকতা শিখবে তাদের আচরণ এমন হলে শিক্ষার্থীদেরকে তারা কি শেখাবেন? তিনি আরও উল্লেখ করেন, শিক্ষাঙ্গনে রাজনৈতিক বিবেচনায় লেজুরবৃত্তি রাজনীতি করা শিক্ষক কিংবা প্রশাসক নয়, জ্ঞান-গরিমায় পান্ডিত্যপূর্ণ শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীবান্ধব যোগ্য প্রশাসন চাই। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খান তার ফেসবুক আইডিতে লেখেন, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সঙ্গে আমরা সাংগঠনিকভাবে একাত্মতা পোষণ করছি। তাদের আন্দোলন সম্পূর্ণ যৌক্তিক।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT