স্বরুপকাঠিতে চেয়ারম্যান পদে এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী | | ajkerparibartan.com স্বরুপকাঠিতে চেয়ারম্যান পদে এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী – ajkerparibartan.com
স্বরুপকাঠিতে চেয়ারম্যান পদে এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী

3:21 pm , March 25, 2019

মো. আসাদুজ্জামান আসাদ, স্বরুপকাঠি ॥ স্বরুপকাঠি উপজেলার নির্বাচনে ভোটের লড়াই হবে আ’লীগের মনোনীত নৌকা ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর আনারস প্রতীকের মধ্যে। সন্ধা নদী দিয়ে দিখন্ডিত স্বরুপকাঠি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আরো এক প্রার্থী রয়েছেন। এনপিপি’র মনোনীত প্রার্থী ওই প্রার্থীর প্রতীক হলো আম। পূর্ব ও পশ্চিম পাড়ে বিভক্ত এই উপজেলায় এগিয়ে রয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী। স্থানীয়রা জানিয়েছে, পূর্ব পাড়ে নৌকার প্রার্থীর প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মুইদুল ইসলাম মুহিদের সমর্থন বেশি। কিন্তু পশ্চিম পাড়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ¦ আব্দুল হকের সমর্থনই বেশি। ভোট বিশ্লেষনে দেখা গেছে, উপজেলার মোট ১,৬৩,১৪৫ জন ভোটারের ৪২.৬৬ ভাগ পশ্চিম পাড়ের সুটিয়াকাঠি, সোহাগদল ও বলদিয়া ইউনিয়নেই। বিএনপি ও জামায়াত বেস্টিত এই তিন ইউনিয়নে ৬৯ হাজার ৬০৫ ভোটের মধ্যে যত বেশি ভোটার ভোট দেবে, তার সিংহভাগ স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ¦ আব্দুল হকের আনারস প্রতীকে যাবে বলে মনে করছেন সমর্থনকারী এক ওয়ার্ড পরিচালক। তনি বলেন, সন্ধা নদীর পূর্ব পাড়ের ৪ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভায় ৬৪ হাজার ৫৪৬ ভোট রয়েছে। এখানে যত ভোট কম পড়বে, ততই স্বতন্ত্র প্রার্থীর জন্য মঙ্গল হবে। স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিভিন্ন উঠান বৈঠক ঘুরে দেখা যায় তার পক্ষে জোড়ালো সমর্থন রয়েছে ভোটারদের। তাদের দাবি স্বতন্ত্র প্রার্থী দানবীর, নীতিবান, দয়ালু, সমাজসেবক ও বিদ্যুৎসাহী। তিনি সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান থাকাকালীন মেয়াদ পূতি শেষে তহবিলে কয়েক লক্ষ টাকা রেখে সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তারা দাবী করেন অনেক চেয়ারম্যানের মতো ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে এই টাকা তিনি আত্মসাৎ করতে পারতেন। কিন্ত তিনি জনগনের টাকা জনগনের তহবিলে জমা রেখে গেছেন। এদিকে বলদিয়া ইউপির ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এক নেতা বলেন দলীয় প্রতীক নৌকা হলেও যোগ্যতার মাপকাঠিতেই স্বতন্ত্র¿ প্রার্থীর আনারস প্রতীকের জন্য কাজ করছি। সোহাগদল ইউপি জাতীয় পার্টির সাবেক এক নেতা মোঃ চান বলেন পূর্ব পাড়ে মুহিদ ২০০৯ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত উপজেলা চেয়রম্যান থাকলেও পশ্চিম পাড়ের উন্নয়নে তিনি কোন ভূমিকা পালন করেননি। এ কারনেই আমরা নিজেদের এলাকার প্রার্থীকে সমর্থন দিচ্ছি। উনি জয়ী হলে নদীর পশ্চিম পাড়ের এলাকার জনগনের জন্য কিছুটা হলেও কাজ করবেন এই আশাই করি। এদিকে সুটিয়াকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল হক খোকন সহ দলের গুরুত্বপূর্ন পদে থাকা একাধিক নেতাকেই দেখা যায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ¦ আব্দুল হকের আনারস প্রতিকের পক্ষে কাজ করছেন। এই ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ কোন নেতার বক্তব্য পাওয়া না গেলেও জাতীয় পার্টি জেপি মঞ্জুর দলের নেতা মোঃ দুলাল শিকদার (জমিদার দুলাল) বলেন সুষ্ঠও নিরপেক্ষ ভোটের পরিবেশ থাকলে এবং মানুষ ভোট দিতে যেতে পালে আমরা সুটিয়াকাঠি বলদিয়া ও সোহাগদল থেকে হক সাহেবকে ২৫ হাজার ভোটে জয়ী করতে চাই এবং সমগ্র উপজেলা থেকে প্রায় ২০ হাজার ভোটে জয়ী হবে বলে আশা রাখি। যাকে নিয়ে নিজ দল আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন দলের নেতাকর্মীদের এত পরিশ্রম ও প্রত্যাশা সেই প্রার্থী আলহাজ¦ আব্দুল হক বলেন আমি জয়ী হতে পারলে স্বরুপকাঠি উপজেলাকে দেশের মধ্যে একটি মডেল উপজেলা তৈরী করবো। যা সমগ্র দেশের উপজেলাগুলোর জন্য অনুসরনীয় হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT